নিয়মের অষ্টরম্ভা! মর্জিমতো ভাড়া নিয়ে ছুটল বেসরকারি বাস

কলকাতা: ভাড়া বৃদ্ধি নিয়ে রাজ্য সরকার ও বাস মালিকদের মধ্যে টানাপোড়েনের মধ্যেই কলকাতা ও শহরতলিতে বেশ কিছু রুটে নেমেছে বেসরকারি বাস। যাত্রীদের অভিযোগ, ভাড়া বৃদ্ধি নিয়ে কোনও সিদ্ধান্ত না হলেও মর্জি মতো ভাড়া আদায় করছে বেসরকারি বাসগুলি। চাকরি বাঁচাতেই তাতে করেই ছুটতে হচ্ছে মানুষকে।

কোনও রুটে বাসে পা দিলেই দিতে হয়েছে ১০ টাকা, কোথাও আবার ১৫ বা ২০। সরকারি নির্দেশ ছাড়া এ ভাবে বেশি ভাড়া নেওয়া যায় কি? কনডাক্টরদের জবাব: যত আসন, তত যাত্রী নিয়ে বাস চালাতে হলে যাত্রীদেরও সহযোগিতা প্রয়োজন। আর মালিকদের সংগঠনগুলোর দাবি, তারা পুরনো ভাড়াই নিতে বলেছে। এর পরেও যদি কেউ বেশি ভাড়া নিয়ে থাকে, সেটা খতিয়ে দেখা হচ্ছে।

আরও পড়ুন: আমফানের ক্ষতি দেখতে আসছে কেন্দ্রীয় দল, মিলবে ‘জামাই আদর’ বোঝাল রাজ্য

বাস ভাড়া বৃদ্ধি নিয়ে গত প্রায় ২ সপ্তাহ ধরে বাসমালিক ও সরকারের মধ্যে টানাপোড়েন চলছে। গত ১৩ মে নবান্নে সাংবাদিক বৈঠকে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বলেছিলেন, ‘বাসভাড়া ঠিক করবেন বাস মালিকরাই। যে পারবে সে চড়বে। যে পারবে না সে চড়বে না।‘ তখন সোশ্যাল ডিসট্যান্সিং মেনে বাসে সর্বোচ্চ ২০ জন যাত্রী তোলার অনুমতি দিয়েছিল সরকার। 

বুধবারের বৈঠকের পরেই বাসমালিকদের সংগঠনগুলো জানিয়ে দিয়েছিল, আজ বৃহস্পতিবার থেকেই শহর ও শহরতলির রাস্তায় নামবে বাস। সেই মতো এ দিন সকাল থেকেই রাস্তায় বাস-মিনিবাসনামতে দেখা যায়। যাত্রীদের ভিড়ও ছিল চোখে পড়ার মতো। কিন্তু যাত্রীদের অভিযোগ, বাসে পা দিলেই ভাড়া বেশি দিতে হচ্ছে। উত্তর কলকাতা থেকে দক্ষিণ কলকাতা, হাওড়া থেকে সল্টলেক— অধিকাংশ বাস-মিনিবাসের কনডাক্টরই এ দিন যেমন খুশি ভাড়া হাঁকিয়েছেন।

আরও পড়ুন: Unlock হতেই কলকাতা ও শিলিগুড়িতে মদের হোম ডেলিভারি শুরু করে দিল Swiggy

Gmail