Unlock 1: উদ্বেগের আবহের মধ্যেই রাজ্যে খুলল শপিং মল-রেস্তোরাঁ, যাওয়ার আগে জেনে নিন যাবতীয় নিয়ম…

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on telegram
Share on whatsapp
Share on email
Share on reddit
Share on pinterest

কলকাতা: দোকান, বাজার, ধর্মস্থান আগেই খুলেছিল। আজ, সোমবার নিয়ম-বিধি শিথিলের দ্বিতীয় পর্যায়ে খুললো সরকারি-বেসরকারি অফিস, শপিং মল রেস্তরাঁ। তবে করোনা সংক্রমণ রুখতে সর্বত্রই মেনে চলতে হবে একগুচ্ছ বিধিনিষেধ৷ কন্টেইনমেন্ট জোনগুলিতে অবশ্য এই সমস্ত পরিষেবা এখনও বন্ধই থাকছে৷

একনজরে দেখে নিন শপিং মলে কী কী করতে পারবেন এবং কী কী পারবেন না –

১) প্রবেশপথে থার্মাল স্ক্রিনিং এবং হ্যান্ড স্যানিটাইজার রাখতে হবে। 

২) শুধুমাত্র উপসর্গহীন ক্রেতাদের ঢুকতে দেওয়া হবে। বাধ্যতামূলকভাবে তাঁদের ফেস কভাব রা মাস্ক পরতে হবে। মলের ভিতরেও সারাক্ষণ তা পরে থাকতে হবে। 

৩) সামাজিক দূরত্বের বিধি পালনের জন্য মল কর্তৃপক্ষকে পর্যাপ্ত কর্মী রাখতে হবে। 

৪) বয়স্ক, অন্ত্বঃসত্ত্বা এবং অসুস্থ কর্মীদের ক্ষেত্রে বাড়তি সতর্কতা নিতে হবে। ক্রেতাদের সংস্পর্শে আসবেন, এমন কাজ তাঁদের না দেওয়াই ভালো।

৫) শপিং মলের বাইরে এবং ভিতরের সমস্ত দোকান, স্টল বা ক্যাফেটেরিয়াতে সামাজিক দূরত্বের বিধি মেনে চলতে হবে।

আরও পড়ুন: অমর্ত্য সেনের কাছে আমার নোবেল আছে! ফেরত চেয়ে হাওড়া ব্রিজের মাথায় উঠলেন মহিলা

৬) কোথাও লাইনে দাঁড়ানোর সময়ে কমপক্ষে ছ’ফুটের দূরত্ব বজায় রাখতে হবে।

৭) সামাজিক দূরত্বের বিধি বজায় রাখতে দোকানের ভিতরে ন্যূনতম ক্রেতা থাকতে হবে।

৮) লিফটে ব্যক্তি সংখ্যা বেঁধে দিতে হবে। এসক্ল্যাসেটরের প্রতিটি সিঁড়িতে দাঁড়ানো যাবে না। একটি সিঁড়ি ছেড়ে দাঁড়াতে হবে। 

৯) মলের ভিতরে এবং বাইরে বড় জমায়েত এড়িয়ে যেতে হবে।

১০) শৌচাগার ভালোভাবে পরিষ্কার করতে হবে। লিফটের বোতাম, রেলিংয়ের মতো যেগুলিতে বারবার হাত দেওয়া হয়, সেগুলি বারেরারে পরিষ্কার এবং জীবাণুমুক্ত করতে হবে।

১১) ফুড কোর্টে ৫০ শতাংশের বেশি মানুষ ঢুকতে পারবেন না। কর্মীদের মাস্ক এবং গ্লাভস পরতে হবে। ক্রেতা টেবিল খালি করার পর প্রতিবার স্যানিটাইজড করতে হবে। সংস্পর্শহীন অর্ডার এবং ই-পেমেন্টের উপর জোর দিতে বলা হয়েছে। 

১২) বাচ্চাদের খেলার কোনও জায়গা থাকলে সেটা বন্ধ থাকবে। গেমিং আর্কেড বন্ধ থাকবে। 

১৩) সিনেমা হল বন্ধ থাকবে।

আরও পড়ুন: একদিনে সংক্রমণের নয়া রেকর্ড,রাজ্যে আক্রান্ত ৪৪৯,বাংলায় ৮ হাজার ছাড়াল আক্রান্তের সংখ্যা

রেস্তোরাঁর ক্ষেত্রে কী কী নিয়ম পালন করতে হবে, তা দেখে নিন একনজরে –

১) রেস্তোরাঁয় ঢোকার মুখে হ্যান্ড স্যানিটাইজার রাখতে হবে। প্রত্যেকের থার্মাল স্ক্রিনিং করতে হবে। 

২) রেস্তোরাঁয় বসে খাওয়ার পরিবর্তে অন্যত্র গিয়ে খাওয়ার বিষয়ে উৎসাহিত করতে হবে।

৩) প্রত্যেক কর্মী এবং ক্রেতাকে বাধ্যতামূলকভাবে ফেস কভার বা মাস্ক পরে রেস্তোরাঁয় ঢুকতে হবে। তবে মাস্ক পরে কীভাবে খাবেন, তা স্পষ্ট নয়। পাশাপাশি রেস্তোরাঁর কর্মীদের গ্লাভস পরতে হবে এবং অন্যান্য সুরক্ষাবিধি অবলম্বন করতে হবে।

৪) এমনভাবে বসার জায়গা বন্দোবস্ত করতে হবে, যাতে সামাজিক দূরত্বের বিধি বজায় থাকে। ৫০ শতাংশের বেশি আসনে বসানো যাবে না।

৫) কাপড় ন্যাপকিনের পরিবর্তে কাগজের ন্যাপকিন ব্যবহারে উৎসাহ প্রদান করতে হবে।

৬) রেস্তোরাঁর বাইরে বা ভিতরে লাইনে দাঁড়ানোর সময়ে কমপক্ষে ছ’ফুটের দূরত্ব বজায় রাখতে হবে।

৭) যে কর্মীরা বাড়িতে খাবারের ডেলিভারি দেন, ডেলিভারির আগে তাঁদের থার্মাল স্ক্রিনিং করতে হবে। তাঁরা ক্রেতার দরজার সামনে খাবার প্যাকেট রেখে আসবেন। ক্রেতার হাতে সরাসরি খাবারের প্যাকেট তুলে দিতে পারবেন না।

৮) লিফটে ব্যক্তি সংখ্যা বেঁধে দিতে হবে। এসক্ল্যাসেটরের প্রতিটি সিঁড়িতে দাঁড়ানো যাবে না। একটি সিঁড়ি ছেড়ে দাঁড়াতে হবে।

৯) রেস্তোরাঁর ভিতরে এবং বাইরে বড় জমায়েত এড়িয়ে যেতে হবে।

১০) শৌচাগার ভালোভাবে পরিষ্কার করতে হবে। লিফটের বোতাম, রেলিংয়ের মতো যেগুলিতে বারবার হাত দেওয়া হয়, সেগুলি বারেরারে পরিষ্কার এবং জীবাণুমুক্ত করতে হবে।

১১) ক্রেতা টেবিল খালি করার পর প্রতিবার স্যানিটাইজড করতে হবে। সংস্পর্শহীন অর্ডার এবং ই-পেমেন্টের উপর জোর দিতে হবে।

১২) বাচ্চাদের খেলার কোনও জায়গা থাকলে সেটা বন্ধ থাকবে। গেমিং আর্কেড বন্ধ থাকবে।

আরও পড়ুন: কামারহাটির সাগরদত্ত মেডিক্যাল কলেজ এবার ৫০০ বেডের সম্পূর্ণ কোভিড হাসপাতাল!

Gmail 1

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on telegram
Share on whatsapp
Share on email
Share on reddit
Share on pinterest