মমতার শপথের দিনেই দেশ জুড়ে ধর্নায় বিজেপি

নীলবাড়ি দখলের লড়াইতে গেরুয়া শিবিরের প্রার্থীদের বহু যোজন পিছনে ফেলে বিপুল সংখ্যক আসন দখল করেছে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের দল।
Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on telegram
Share on whatsapp
Share on email
Share on reddit
Share on pinterest

ভোট পরবর্তী হিংসায় বঙ্গজুড়ে আক্রান্ত হচ্ছেন কর্মীরা, এমনই অভিযোগ তুলে আগামী বুধবার দেশজুড়ে ধর্নার ডাক দিয়েছে বিজেপি। গেরুয়া শিবিরের পক্ষ থেকে সংবাদসংস্থা এএনাইকে জানানো হয়েছে, বর্তমান করোনা পরিস্থিতির কথা মাথায় রেখে সবরকম কোভিড প্রোটোকল মেনেই ধর্নায় বসবে তারা। উল্লেখযোগ্যভাবে, আগামী বুধবার ৫ মে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী পদে তৃতীয়বার শপথ নেবেন।

নীলবাড়ি দখলের লড়াইতে গেরুয়া শিবিরের প্রার্থীদের বহু যোজন পিছনে ফেলে বিপুল সংখ্যক আসন দখল করেছে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের দল। ২৯৪টির মধ্যে ২১৩টি আসনে জয়ের পর বুধবার, ৫ মে সকাল পৌনে ১১টা নাগাদ রাজভবনে তৃতীয় বারের জন্য মুখ্যমন্ত্রী পদে শপথ গ্রহণ করবেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

সোমবার একটি প্রেস বিজ্ঞপ্তি জারি করে বিজেপি-র অভিযোগ, ভোটের ফলাফল বার হওয়ার ২৪ ঘণ্টার মধ্যেই রাজ্যে তাণ্ডব চালানো শুরু করেছে তৃণমূলআশ্রিত দুষ্কৃতীরা। দলের বহু কর্মীকে খুন করছে তারা। সেই সঙ্গে হিংসায় আহত হয়েছেন বহু কর্মী। তাঁদের দোকান, ঘরবাড়ি জ্বালিয়ে দেওয়া হয়েছে। অগ্নিসংযোগ করা হয়েছে জেলা কার্যালয়েও। গোটা পরিস্থিতিতে নীরব দর্শকের ভূমিকা নিয়েছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। এমনকি, এ নিয়ে রাজ্যপাল জগদীপ ধনখড়ও বিবৃতি দিয়েছেন বলে ওই বিজ্ঞপ্তিতে জানিয়েছে বিজেপি। এর নিন্দায় প্রতিবাদের পথ বেছে নিয়েছে তারা।

আরও পড়ুন: সার্ভারের সমস্যা সঙ্গী করে নন্দীগ্রামে জয়ী শুভেন্দুই, পুনর্গণনা নয়, ঘোষণা কমিশনের

ভোট পরবর্তী হিংসা এবং তাণ্ডবের অভিযোগে সোমবার রাজ্যের স্বরাষ্ট্র দফতরের অতিরিক্ত মুখ্যসচিব হরিকৃষ্ণ দ্বিবেদী এবং কলকাতার পুলিশ কমিশনার সৌমেন মিত্রর কাছে রিপোর্ট তলব করেছেন রাজ্যপাল জগদীপ ধনখড়। সোমবার রাতে একটি টুইটে এ কথা জানান রাজ্যপাল। রাতেই আরও একটি টুইটে ধনখড় জানিয়েছেন যে রাজ্যে ডিজিপি টি নীরজনয়ন এবং কলকাতার পুলিশ কমিশনার এ বিষয়ে স্বরাষ্ট্র দফতরে তাঁদের রিপোর্ট জমা করেছেন। যদিও কেন সরাসরি সেই রিপোর্ট রাজ্যপালের কাছে পাঠানো হল না, তা নিয়েও নিজের টুইটে উষ্মা প্রকাশ করেছেন ধনখড়।

আরও পড়ুন: ‘ফিরে এলে স্বাগত,’দলবদলুদের’ বার্তা মমতার

 

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on telegram
Share on whatsapp
Share on email
Share on reddit
Share on pinterest