দিল্লি পৌঁছল রাজ্য বিজেপির তৈরি ১৩০ আসনের প্রার্থী তালিকা, একই কেন্দ্রের জন্য একাধিক নাম

রাজ্য বিজেপি সূত্রে আরও জানা গিয়েছে, একসঙ্গে ২৯৪ আসনের প্রার্থী তালিকা ঘোষণা করা হবে না।
Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on telegram
Share on whatsapp
Share on email
Share on reddit
Share on pinterest

ভোটের দিনক্ষণ সামনে আসতেই প্রার্থীতালিকা ঘোষণার চল রয়েছে বঙ্গে। এমনকী ভোটের নির্ঘণ্ট প্রকাশের আগেই প্রার্থীদের নাম ঘোষণা করে ফেলত বামেরা। আর ভোটের নির্ঘণ্ট ঘোষণার দিন প্রার্থীতালিকা প্রকাশ করে তৃণমূল। তবে একুশের ভোটে সব কিছুই করা হচ্ছে সময় নিয়ে। তৃণমূল শনিবার দুপুর পর্যন্ত প্রার্থী ঘোষণা করেনি। তবে তা কিছুদিনের মধ্যেই করবে বলে জানা গিয়েছে। আর এদিকে, এদিন বাংলার ১৩০টি আসনের সম্ভাব্য প্রার্থীর নাম প্রস্তাব করল রাজ্য বিজেপি।

রাজ্য বিজেপি সূত্রে খবর, কোনও আসনেই একজন প্রার্থীর নাম নয়। প্রায় সব আসনের জন্যই একাধিক প্রার্থীর নাম পাঠানো হয়েছে। সেখান থেকে চূড়ান্ত প্রার্থী (WB Assembly Election 2021) হিসেবে কাকে বেছে নেওয়া হবে, তা স্থির করবে কেন্দ্রীয় নেৃত্বত্ব। প্রসঙ্গত, বিজেপির প্রার্থী নির্ধারণ প্রক্রিয়া এভাবেই চলে। রাজ্য বিজেপির শীর্ষ পদাধিকারী এবং বিভিন্ন সাংগঠনিক জোনের দায়িত্বপ্রাপ্ত নেতাদের কাছ থেকে সম্ভাব্য প্রার্থী নাম চাওয়া হয়েছিল।

সেইমতো বিভিন্ন আসনের পরিপ্রেক্ষিতে নাম পাঠিয়েছে স্থানীয় নেতৃত্ব। তার ভিত্তিতেই খসড়া তালিকা বানিয়ে দিল্লিতে পাঠানো হয়েছে বলে রাজ্য বিজেপি (BJP) সূত্রে খবর। দেখা গিয়েছে, কোনও আসনের জন্যই একজনের পাঠানো হয়নি। প্রায় সব আসনেই সম্ভাব্য দুই বা তার বেশি নাম প্রস্তাব করা হয়েছে। এবার সেই নাম তালিকা নিয়ে কেন্দ্রীয় নেতৃত্ব বিজেপি রাজ্য নেতৃত্ব, দরকারে জেলা বা স্থানীয় নেতৃত্বের সঙ্গে কথা বলবে। তারপরই কেন্দ্রীয় নেতৃত্বের অনুমোদন ক্রমে চূড়ান্ত প্রার্থী নামে শিলমোহর দেওয়া হবে।

আরও পড়ুন: ভোট ঘোষণা হতেই আসরে প্রশান্ত কিশোর, ৯৯ পেরোবে না বিজেপি – মনে করিয়ে দিলেন পুরনো টুইট

প্রথম পর্যায়ে ১৩০ বিধানসভা কেন্দ্রের প্রার্থী বেছে নিতে চাইছে দল। পরের পর্যায়ে বাকি ১৬৪ কেন্দ্রের জন্য প্রার্থী বাছাই করবে কেন্দ্রীয় নির্বাচনী কমিটি। এর আগে লোকসভা ভোটেও দফায় দফায় প্রার্থীর নাম ঘোষণা করতে দেখা গিয়েছে বিজেপিকে। তা নিয়ে কটাক্ষও শানিয়েছিল বিরোধীরা। তৃণমূলের বক্তব্য ছিল, প্রার্থী খুঁজে না পেয়েই ধাপে ধাপে নাম ঘোষণা করেছে তারা। যদিও এ নিয়ে বিজেপির বক্তব্য, তারা একটি সর্বভারতীয় দল। তারা অন্যদের মতো প্রার্থী তালিকা তৈরি করে না। কেন্দ্রীয় নির্বাচনী কমিটি বসে সর্বমতের নিরিখে চূড়ান্ত নামে সিলমোহর দেয়।

গত বছর ডিসেম্বর মাসের শেষের দিকে কলকাতার মুরলীধর সেন লেনে রাজ্য অফিসে রাখা হয় একটি ড্রপবক্স। বিধানসভা নির্বাচনে বিজেপি প্রার্থী হতে চাইলে সেই বাক্সে আবেদনপত্র জমা দেওয়ার সুযোগ করে দিয়েছিল গেরুয়া শিবির। বিজেপি এ ব্যাপারে জানিয়েছিল, সকলের কাছে হয়তো দল পৌঁছতে পারেনি। এলাকায় জনপ্রিয় যোগ্য ব্যক্তি অথচ বিজেপি–র সঙ্গে যুক্ত নন। তিনিও প্রার্থী হতে পারেন এই বাক্সে নিজের আবেদনপত্র জমা দিয়ে।

আরও পড়ুন: BJPর পরিবর্তন যাত্রার রথ ভাঙচুর, অভিযোগ যথারীতি Trinamoolএর বিরুদ্ধে

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on telegram
Share on whatsapp
Share on email
Share on reddit
Share on pinterest