অধীরকেই প্রদেশ কংগ্রেস সভাপতি করা হোক, সোনিয়াকে চিঠি মান্নানের


অধীর চৌধুরীকে প্রদেশ কংগ্রেস সভাপতি করার অনুরোধ জানিয়ে এবার সভানেত্রী সোনিয়া গান্ধীকে চিঠি লিখলেন আবদুল মান্নান।৩০ জুলাই সোমেন মিত্রের মৃত্যুর পর থেকে রাজ্যে শূন্য হয়ে পড়ে রয়েছে প্রদেশ কংগ্রেস সভাপতির পদ। ইতিমধ্যে অনেকেই সেই পদের দাবিদার হতে চাইলেও লোকসভায় কংগ্রেসের দলনেতা ‌অধীর চৌধুরীকেই পরবর্তী প্রদেশ কংগ্রেস সভাপতি হিসেবে দেখতে চান মান্নান। ‌

আরও পড়ুন : জিএসটি ক্ষতিপূরণ না পেলে কেন্দ্রের ওপরে ভরসাই চলে যাবে, মোদীকে চিঠি দিদির

চিঠিতে মান্নান পশ্চিমবঙ্গে দলের সাংগঠনিক সমস্যার দিকে নজর দিতে অনুরোধ জানিয়েছেন সোনিয়া গান্ধী ও রাহুল গান্ধীকে। পশ্চিমবঙ্গের বিরোধী দলনেতা আবদুল মান্নান ওই চিঠিতে লিখেছেন, প্রদেশ কংগ্রেস সভাপতি সোমেন মিত্রের মৃত্যুর এক মাস হয়ে গিয়েছে, এখনও শূন্য সেই পদে কাউকে নিয়োগ করা হয়নি। ২০২১–এর শুরুতেই বিধানসভা নির্বাচন। এ অবস্থায় দ্রুত প্রদেশ কংগ্রেস সভাপতি নিয়োগ করা প্রয়োজন। আবদুল মান্নান চিঠিতে অনুরোধ জানিয়েছেন, এমন কাউকে এই পদে নিয়োজিত করা হোক যাঁর জনপ্রিয়তা রয়েছে। একথা ঠিক জনপ্রিয়তায় এই মুহূর্তে বঙ্গ কংগ্রেসে অধীরের তুল্য কেউ নেই।

মান্নান সাংসদ অধীররঞ্জন চৌধুরীকে ফের প্রদেশ কংগ্রেস সভাপতি করার আবেদন জানান সোনিয়ার কাছে। চিঠিতে তিনি লেখেন, প্রধান বিরোধী দল বিজেপি এবং তৃণমূলকে নির্বাচনে টেক্কা দিতে অধীর চৌধুরীর নেতৃত্বই সব থেকে বেশি ফলপ্রসূ হবে। এ ক্ষেত্রে তিনি একইসঙ্গে লোকসভায় কংগ্রেসের দলনেতার দায়িত্বও পালন করতে পারবেন। একইসঙ্গে চিঠিতে আবদুল মান্নান জানান যে সোনিয়া গান্ধী ও রাহুল গান্ধীর সিদ্ধান্ত যাই হোক না কেন তিনি সেটিই শিরোধার্য বলে মেনে নেবেন।

একথা ঠিক যে দাপুটে নেতা বলতে যা বোঝায়, অধীর চৌধুরী তাই। লোকসভাতেও তিনি নিজের দাপট দেখিয়েছেন। টক্কর দিয়েছেন বিজেপির সঙ্গে। বাংলায় তিনি টক্কর দিয়েছেন তৃণমূলের সঙ্গে। সেই হিসাবে মান্নানের এই মতের সঙ্গে অনেকেই সহমত পোষন করেছেন।

আরও পড়ুন : হ্যাকারদের কবলে প্রধানমন্ত্রীর ব্যক্তিগত ওয়েবসাইটের টুইটার হ্যান্ডল, ছড়িয়েছে ভুয়ো টুইট