Bizarre: Bulgaria woman makes biggest lip to look like Barbie

World’s Biggest Lip: ২০ বার অস্ত্রোপচার! বিশ্বের সবচেয়ে বড় ঠোঁট বানাতে তরুণীর একী কাণ্ড

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on telegram
Share on whatsapp
Share on email
Share on reddit
Share on pinterest

নিজেকে সুন্দর দেখাতে তারকা থেকে আমজনতা একাধিক পদক্ষেপ গ্রহণ করে থাকেন। যার জন্য চিকিৎসকদের পরামর্শ একান্ত জরুরি হয়ে পড়ে। কিন্তু সম্প্রতি সোশাল মিডিয়া যাকে নিয়ে চর্চা শুরু করছেন, তিনি মারাত্মক সিদ্ধান্ত গ্রহণ করেছেন বলে মনে করছেন নেট নাগরিকদের একাংশ। কারণ ১৭ বার শরীরে অ্যাসিড ইঞ্জেকশন নিয়েছেন ওই মহিলা।

সুন্দরী শুধু নয়, তিনি বার্বি হতে চান। যার জন্য ঠোঁট ও শরীরের আকৃতি বদলাতে চায় বুলগেরিয়ার অ্যান্ড্রিয়া ইভানোভা।ব্রিটিশ সংবাদপত্র মিরর এর এক প্রতিবেদন থেকে জানা যায়, এই শরীরের জন্য ১৭ বার হাইঅ্যালুরোনিক অ্যাসিড ইঞ্জেক্ট করিয়েছেন শরীরে। নিজের ঠোঁটকে বড় করে তুলতে চান তিনি। ২০১৮ সাল থেকে দৈহিক গঠনের বদল আনতে মরিয়া এই যুবতী।

 

View this post on Instagram

 

A post shared by Andrea Ivanova (@andrea88476)

ইভানোভা আরও জানান, সর্বশেষ অস্ত্রোপচারের পর চিকিৎসকরা জানিয়েছেন এটাই যথেষ্ট। তবে নিজের ঠোঁট নিয়ে এখনো সন্তুষ্ট নন তিনি। ঠোঁট আরও বড় বানানোর জন্য আরও দু’টি অস্ত্রোপচার করাতে চান তিনি। ইভানোভার এই অদ্ভুত শখ দেখে অনেকেই শঙ্কা প্রকাশ করেছেন তার স্বাস্থ্য নিয়ে। নিজের এই ঠোঁট নিয়ে ট্রোলেরও শিকার হয়েছে। তবে সব সমালোচনা বাদ দিয়ে তার একটাই লক্ষ্য নিজের ঠোঁটকে আরও বড় কিভাবে বানানো যায়।

মিররে উল্লেখ আছে, যুবতীর কাছে তাঁর ঠোঁট অনেক বেশি প্রিয়। আর এইরকম ঠোঁট পাওয়ার জন্য তিনি যতটা সম্ভব টাকা খরচ করতে রাজি আছেন। তবে অ্যান্ড্রিয়ার এই ঠোঁট সোশাল মিডিয়ার কারর পছন্দ নয়। অনেকেই কটাক্ষ মন্তব্য করেছেন। ইনস্টাগ্রামে অ্যান্ড্রিয়া ইভানোভা ছবি ও তাঁর এই উদ্ভট পদক্ষেপ এখন ভাইরাল। জানা যাচ্ছে, ইনি নাকি বিশ্বের সবচেয়ে বৃহত্তম ‘ঠোঁট’ এর খেতাব জিততেই এই সিদ্ধান্ত নিয়েছেন।

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on telegram
Share on whatsapp
Share on email
Share on reddit
Share on pinterest