বর্ষা ঢুকল কেরলে, হপ্তাখানেকের মধ্যে বাংলাতেও নামতে পারে ঝমঝমিয়ে বৃষ্টি

ওয়েব ডেস্ক: ছন্দে রয়েছে মৌসুমী বায়ু।এ বছর নির্দিষ্ট সময়ে কেরলে ঢুকে পড়ল বর্ষা। সোমবার সকাল থেকেই কেরলের বিভিন্ন প্রান্তে বৃষ্টি শুরু হয়ে গিয়েছে। জুন থেকে সেপ্টেম্বর পর্যন্ত বৃষ্টির হারও স্বাভাবিক থাকবে বলে জানিয়েছে দিল্লির মৌসম ভবন।

কেরলে বর্ষা ঢোকে সাধারণত ১ জুন। এ রাজ্যে সাধারণভাবে উত্তর-পূর্বাঞ্চল হয়ে উত্তরবঙ্গে বর্ষা ঢোকার স্বাভাবিক সময় ৫ জুন। ৮ জুন নাগাদ দক্ষিণবঙ্গে বর্ষা এসে যায়। সব ঠিক থাকলে সপ্তাহখানেকের মধ্যে বাংলায় ঢুকে পড়বে বর্ষা। দেশের অন্যান্য অংশেও সঠিক সময়েই বর্ষা ঢুকবে বলে অনুমান আবহবিদদের। এবছর বৃষ্টির পরিমাণও ঠিকঠাক হবে বলে জানিয়েছে আবহাওয়া দফতর।

আরও পড়ুন: ধেয়ে আসছে সুপার সাইক্লোন ‘নিসর্গ’, আতঙ্কে মহারাষ্ট্র -গুজরাত,তছনছ হতে পারে মুম্বই

দিল্লির মৌসম ভবনের অধিকর্তা মৃতুঞ্জয় মহাপাত্র বলেন, “কেরলে নির্দিষ্ট সময়েই বর্ষা এসেছে। বৃষ্টিও শুরু হয়েছে।” তবে এ রাজ্যে নির্দিষ্ট সময়ে বর্ষা আসবে হবে কি না, সে বিষয়ে এখনই কোনও মন্তব্য করতে চাননি মৃত্যুঞ্জয় মহাপাত্র।

উত্তর ও দক্ষিণবঙ্গে বর্ষা ঢোকে মৌসুমি বায়ুর দু’টি ভিন্ন শাখা বেয়ে। কেরলের শাখাটি উত্তর দিকে উঠতে উঠতে চলে আসে পূর্ব ভারতে। সেটাই দক্ষিণবঙ্গে বর্ষা নিয়ে আসে। মৌসুমি বায়ুর অন্য শাখা আন্দামান থেকে মায়ানমার হয়ে উত্তর-পূর্বাঞ্চল হয়ে ঢোকে উত্তরবঙ্গে। 

কেরল দিয়ে বর্ষার মূল শাখা ভারতীয় ভূখণ্ডে ১ জুন ঢুকে যাওয়ায় এ বছর বর্ষার ঘাটতি কম হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। বর্ষার ওই শাখা আরবসাগর ও বঙ্গোপসাগর হয়ে ক্রমেই উপরের দিকে উঠতে থাকে। এই সময়ে আরবসাগরে নিম্নচাপ বা ঘূর্ণিঝড়ের সৃষ্টি হলে পশ্চিম ভারতে অতি-সক্রিয় হয়ে ওঠে বর্ষা। 

আরও পড়ুন: ভারত-চিন যুদ্ধ কি আসন্ন? লাদাখে অস্ত্র মজুত করছে দুই দেশই, কাশ্মীর থেকে সরানো হল সেনা !

Gmail 3