রাজ্যের মুকুটে নতুন পালক। পঞ্চায়েত স্তরে ডিজিটাল মাধ্যমে সুষ্ঠুভাবে পরিচালনা এবং তার সুফল আমজনতার কাছে পৌঁছে দেওয়ার কাজটা দক্ষতার সঙ্গে সামলেছে রাজ্য প্রশাসন। এবার সেই কাজেরই স্বীকৃতি পেল বাংলা। পঞ্চায়েত ব্যবস্থায় ই-গভর্নেন্সের নিরিখে ২৮টি রাজ্যের মধ্যে তৃতীয় স্থান পেল রাজ্য। সোমবার সাংবাদিক বৈঠক করে এ কথা গোষণা করলেন পঞ্চায়েতমন্ত্রী সুব্রত মুখোপাধ্যায়।

দু’বছর ধরে দেশজুড়ে দাপট দেখাচ্ছে করোনা ভাইরাস। প্রাণঘাতী ভাইরাসের সংক্রমণ রুখতে দিনরাত এক করে কাজ করেছে পঞ্চায়েত দপ্তরের কর্মীরা। এর মাঝেই এই দপ্তর পরিচালনা করতে ডিজিটাল মাধ্যমের উপর ভরসা রেখেছে রাজ্য প্রশাসন। এর জেরে একদিকে যেমন স্বচ্ছতা এসেছে। তেমনই আমজনতার কাছে সহজেই পৌঁছে গিয়েছে পরিষেবা। আর এই প্রচেষ্টাকে কুর্নিশ জানাল কেন্দ্র।

আরও পড়ুন : স্তনের নিপল কালো হলে মন খারাপ করবেন না, আছে ঘরোয়া পদ্ধতিতে গোলাপি করার উপায়

এদিন পঞ্চায়েত ভবনে সাংবাদিক সম্মেলন করে এই পুরস্কার পাওয়ার ঘোষণা করেন পঞ্চায়েত মন্ত্রী সুব্রত মুখোপাধ্যায়। কেন্দ্রের মোদি সরকারে পঞ্চায়েত দপ্তর বিষয়ক মন্ত্রী নরেন্দ্র সিং তোমরের পাঠানো মানপত্র দেখিয়ে রাজ্যের মন্ত্রী জানান, পঞ্চায়েত ব্যবস্থায় ই-গভর্নেন্সের দেশের মধ্যে তৃতীয় স্থান দখল করেছে পশ্চিমবঙ্গ সরকারের পঞ্চায়েত বিভাগ। তার জন্যই কেন্দ্র সরকার পঞ্চায়েত দপ্তরের পুরস্কারস্বরূপ মানপত্র পাঠানো হয়েছে।” পাশাপাশি, এদিন পঞ্চায়েত মন্ত্রী আরও জানান, পঞ্চায়েত দপ্তর ঘূর্ণিঝড়ে ক্ষতিগ্রস্ত মানুষের পাশে দাঁড়াতে ১০০ দিনের কাজের জোগান বেশি করে দিতে হবে। এ নিয়ে উদ্যোগ নিয়েছে প্রশাসন।

উল্লেখ্য, বছর দুয়েক আগে দেশে সেরার পুরস্কার ছিনিয়ে নিল মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের নেতৃত্বাধীন বাংলার তৃণমূল পরিচালিত সুন্দরবন এলাকার এক পঞ্চায়েত। দেশের আড়াই লক্ষ গ্রাম পঞ্চায়েতের মধ্যে সেরা হল পাথরপ্রতিমার দিগম্বরপুর। শনিবার দেশের সেরা গ্রাম পঞ্চায়েত হিসাবে দিগম্বরপুরের নাম ঘোষণা করেছে কেন্দ্রীয় সরকার।

এছাড়াও বর্ধমান, বীরভূম ও পুরুলিয়ার বেশ কয়েকটি গ্রাম পঞ্চায়েত ও পঞ্চায়েত সমিতি বিশেষ পুরস্কারে সম্মানিত হয়েছে। মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের উন্নয়ন কর্মসূচির জেরেই এই সাফল্যে উল্লসিত শাসক দল তৃণমূল কংগ্রেস।  কেন্দ্রীয় সরকারের কাছ থেকে দেশের সেরা পঞ্চায়েতের সম্মান পাওয়ার কথা ঘোষণা করেন রাজ্যের পঞ্চায়েত ও জনস্বাস্থ্য মন্ত্রী সুব্রত মুখোপাধ্যায়।

আরও পড়ুন : প্রেগনেন্সি টেস্ট কেন সকালেই করা হয়?

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *