Dilip Ghosh oust From The Post Of Bjp Vice President

Dilip Ghosh: বিজেপিতে পদ খোয়ালেন দিলীপ ঘোষ, বিজেপিতে বড় রদবদল

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on telegram
Share on whatsapp
Share on email
Share on reddit
Share on pinterest

সর্বভারতীয় সহ সভাপতির তালিকা থেকে বাদ গেল দিলীপ ঘোষের নাম(Dilip Ghosh)। এদিন বিজেপির কেন্দ্রীয় নেতৃত্বের তরফে শীর্ষ সংগঠকদের একটি তালিকা প্রকাশ করা হয়। সেখানে দেখা যায়, সর্বভারতীয় সহ সভাপতির তালিকায় দিলীপ ঘোষের নাম নেই। খড়গপুরের বিজেপি সাংসদকে অবশ্য কেন্দ্রীয় মন্ত্রিসভাতেও নিয়ে আসা হতে পারে। বাংলা থেকে কোনোবারই কাউকে পূর্ণমন্ত্রী করেনি মোদী সরকার। বাংলার কপালে বরাবর জুটেছে প্রতিমন্ত্রী। লোকসভা হতে আর হয়ত ৮-৯ মাস বাকি।তার আগে শান্তনা পুরস্কার হিসাবে দিলীপকে কয়েকমাসের জন্য মন্ত্রী করলে অবাক হওয়ার কিছু নেই।আপাতত দিলীপ শুধুই BJP সাংসদ। রাষ্ট্রীয় সচিব পদে বহাল থাকছেন অনুপম হাজরা।

রাজনৈতিক মহলের একাংশের কথায়, তিনিই এখনও পর্যন্ত বাংলার ‘সবথেকে সফল’ রাজ্য BJP সভাপতি। তাঁর মন্তব্যে একাধিকবার বিতর্ক তৈরি হয়েছে। সমালোচনার মুখে পড়তে হয়েছে গেরুয়া শিবিরকে। কিন্তু, দিলীপ জামানায় বাংলায় যে ধারে ভারে বেড়েছিল BJP তা অস্বীকার করার জো নেই। কিন্তু, এবার সেই দিলীপ ঘোষকেই দলীয় পদ থেকে সরানোর সিদ্ধান্ত নিল কেন্দ্রীয় BJP নেতৃত্ব। শুভেন্দুর থেকে দিলীপের কথার বিশ্বাযোগ্যতা আজও বানাগ্লার বিজেপি কর্মী সমর্থকদের কাছে বেশি। তৃণমূলের বিরুদ্ধে দুর্নীতির যে অভিযোগ তিনি লাগাতার করেনতিনি নিজেও যে সেই অভিযোগে জড়িত, একথা তার গুণগ্রাহীরাও অস্বীকার করতে পারে না। তার স্পষ্ট ফুটেজে আছে। কেবল পদ্মে আছেন বলে সিবিআই কিংবা ইডি তাঁকে ঘাঁটায় না। একথা জনাতেও কারো বাকি নেই। শুভেন্দু গলা ফাটিয়ে নিয়মিত নানা ভিত্তিহীন বিষয়য়ে যেভাবে চিৎকার করে কয়েকটি মিডিয়ার আলো গায়ে মাখার চেষ্টা করেন, তাতে তারা অসহায়তা ঢাকা পড়েনা।

এদিন বিজেপির তরফ থেকে যে তালিকা প্রকাশ হয়েছে, সেখানে দেখা যাচ্ছে বাংলা থেকে মাত্র একজন নেতার নামই রয়েছে। তিনি হচ্ছে অনুপম হাজরা। তাঁকে দলের রাষ্ট্রীয় সচিবের পদ দেওয়া হয়েছে। প্রসঙ্গত, মাত্র ৩ দিন আগেই দিল্লিতে গিয়ে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহের সঙ্গে বৈঠক করেন রাজ্যে বিজেপি সভাপতি সুকান্ত মজুমদার এবং রাজ্যের বিরোধী দলনেতা শুভেন্দু অধিকারী।

২৩-এর লোকসভা নির্বাচনে ১৯-এর রেকর্ড ভাঙার পরিকল্পনা করছে গেরুয়া শিবির। ১৮ নয়, নজর এবার আরও বেশি আসন। আর সেই জন্য কেন্দ্রীয় নেতৃত্বেরও এই মুহূর্তে পাখির চোখ বাংলা। উল্লেখ্য, দিলীপ ঘোষের হাত ধরেই বাংলায় BJP বহরে বেড়েছিল। ১৯-এর লোকসভা নির্বাচনে রাজ্যে যখন ১৮টি আসন পায় গেরুয়া শিবির সেই সময় বাংলার সভাপতি ছিলেন দিলীপ ঘোষ। এর আগে বাংলা থেকে এত বিপুল সংখ্যক আসনে জয় অতীতে ঘরে তুলতে পারেনি গেরুয়া শিবির। ২০২১ সাল থেকে BJP-র সর্বভারতীয় সহ সভাপতি পদে ছিলেন দিলীপ ঘোষ। সেক্ষেত্রে তাঁকে পদ থেকে সরানো অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ বলে মনে করা হচ্ছে।

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on telegram
Share on whatsapp
Share on email
Share on reddit
Share on pinterest