Mamata Banerjee announces khela dibosh will celebrate 16 August sum.

১৬ অগাস্ট রাজ্যে খেলা দিবস পালিত হবে, ঘোষণা মমতার

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on telegram
Share on whatsapp
Share on email
Share on reddit
Share on pinterest

বুধবার‌ একুশের মঞ্চ থেকে ‘‌খেলা হবে‌ দিবস’‌ ঘোষণা করেছেন তৃণমূল দলনেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। প্রতিবছর ১৬ আগস্ট দিনটি খেলা হবে দিবস বলে পালিত হবে বলে জানিয়েছেন তিনি। তাঁর এই ঘোষণার পরই তীব্র প্রতিক্রিয়া শুরু হয়েছে বিরোধী শিবিরে।

এদিন বিজেপি-কে তীব্র আক্রমণ করেন তৃণমূল নেত্রী। তিনি বলেন, ‘ত্রিপুরায় আমাদের অনুষ্ঠান করতে দেওয়া হয়নি। এটাই কি গণতন্ত্র? সব গণতান্ত্রিক প্রতিষ্ঠানকে ধ্বংস করা হচ্ছে। ২০২৪-এ কী হবে জানি না, তবে আগেভাগে পরিকল্পনা করতে হবে। ওরা নৃশংস, শান্তিতে কাউকে বাঁচতে দেবে না। আমি চিদম্বরমকে ফোন করতে পারি না, ফোনে আড়ি পাতা হয়। আমাকে ফোনের ক্যামেরায় প্লাস্টার লাগাতে হচ্ছে। রান্নার গ্যাসের দাম ৪৭ বার বেড়েছে। প্রায় পৌনে চার লক্ষ কোটি টাকা খোয়া গিয়েছে গৃহস্থর। বিজেপি সরকার গণতান্ত্রিক অধিকার শেষ করে দিচ্ছে। যুক্তরাষ্ট্রীয় অধিকার, বিচারব্যবস্থাকে শেষ করছে। গোটা দেশে গোয়েন্দাগিরি চলছে।নিজেদের স্বার্থ ভুলে আমাদের সবাইকে এককাট্টা হতে হবে। কোভিডে কেউ মারা গেলে উত্তরপ্রদেশে নদীতে দেহ ভাসিয়ে দেওয়া হয়। তার উপর প্রধানমন্ত্রী উত্তরপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রীর প্রশংসা করেন! ঠিকভাবে নিয়ন্ত্রিত হলে, কোভিডের দ্বিতীয় ঢেউ আসত না। সব নেতাদের বলছি, ফ্রন্ট তৈরি করুন। পরের সপ্তাহে দু’তিনদিনের জন্য দিল্লি যাব। গুরুত্বপূর্ণ নেতাদের সঙ্গে বৈঠক করব। শরদ পাওয়ারদের অনুরোধ, দিল্লিতে বৈঠকের আয়োজন করুন। সেই বৈঠকে আমিও থাকব, আলোচনা হোক।’

‘খেলা হবে’ প্রকল্পের মাধ্যমে বিভিন্ন ক্লাবে ফুটবল বিতরণ করা হবে। রাজ্য সরকারের আশা, এর ফলে গ্রাম বাংলার বহু ফুটবলার উঠে আসবে। আর ফুটবলের প্রতি সকলের আগ্রহ জন্মাবে। প্রতিটি জেলায় যুব আধিকারিকদের দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে, সংশ্লিষ্ট এলাকায় যতগুলি ক্লাব রয়েছে তাদের সম্পর্কে বিস্তারিত তথ্য জানাতে। জুন মাসের সেই সম্পর্কিত যাবতীয় তথ্য জানাতে নির্দেশ দেওয়া হয়েছিল নবান্নকে। এবার সেই খেলা হবের দিনটিও ঘোষণা করে দেওয়া হল। বিধানসভা নির্বাচনের সময়ে তৃণমূলের খেলা হবে স্লোগানটি ব্যপক জনপ্রিয় হয়েছিল ঘাসফুল কর্মীদের মধ্যে। মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় নিজেও ব্যবহার করেছেন এই স্লোগান। এমনকী নিজের জনসভা থেকে ফুটবলও ছুঁড়ে দিয়েছিলেন তিনি।

মমতা বলেন, অনেক গদ্দার রয়েছে যারা মুখে বড় বড় কথা বলছে। এদের বাংলার মানুষ একদিন দূরে ছুঁড়ে দেবে। বিজেপিতে গদ্দারদের জন্ম হয়। কারণ এরা সভ্যতা জানে না , এই দেশটাকে জানে না। ওরা সবার মুখ বন্ধ রাখার চেষ্টা করে। আমার এই রাজনীতি পছন্দ নয়। বিজেপিতে যতদিন না দেশ থেকে তাড়াচ্ছি, ততদিন রাজ্যে রাজ্যে খেলা হবে।

 

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on telegram
Share on whatsapp
Share on email
Share on reddit
Share on pinterest