20 days old child allegedly died after the Eunuch denied giving the child to her mother

শিশুকে মায়ের থেকে আলাদা করল বৃহন্নলা, খেতে না পেয়ে প্রাণ গেল সদ্যোজাতের

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on telegram
Share on whatsapp
Share on email
Share on reddit
Share on pinterest

দাবি মতো টাকা না মেলায় শিশুকে আড়াই ঘণ্টা আটকে রাখার জের। মৃত্যুর কোলে ঢলে পড়ল সদ্যোজাত। এই ঘটনাকে কেন্দ্র করে তীব্র উত্তেজনা ছড়িয়েছে মালদহের (Malda) মানিকচকে। এক বৃহন্নলাকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

জানা গিয়েছে, মানিকচকের বাঙালগ্রামের বাসিন্দা মাম্পি মাঝি। গত ২৯ অক্টোবর মালদহ মেডিক্যাল কলেজে সন্তানের জন্ম দেন তিনি। বুধবার টাকার বিনিময়ে শিশুটিকে আশীর্বাদ করতে তাঁর বাড়িতে যায় বৃহন্নলারা। শিশুটির পরিবারের কাছে ১২০০ টাকা দাবি করে তারা। কিন্তু এত টাকা দেওয়া মাঝি পরিবারের কাছে কার্যত অসম্ভব। তা বৃহন্নলাদের জানিয়ে দেয় পরিবার।  এরপরই শিশুটিকে প্রায় আড়াই ঘণ্টা নিজেদের কাছে রেখে দেয় বৃহন্নলারা। জোরে জোরে ঢোল বাজাতে থাকে। এমনকি মাম্পি এবং পরিবারের অন্য সদস্যরা শিশুটিকে খাওয়াতে চাইলে ওই বৃহন্নলা ছাড়েনি।

মৃত্যু হয় তার। এরপরই খবর দেওয়া হয় মানিকচক থানায়। সঙ্গে সঙ্গে ঘটনাস্থলে পৌঁছয় পুলিশ। সেখান থেকেই গ্রেপ্তার করা হয় বৃহন্নলাকে। স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, শিশুটির পরিবারের তরফে ৩০০ টাকা দেওয়ার কথা বলা হয়েছিল। বারবার খাওয়ানোর জন্য শিশুটিকে চেয়েছিল পরিবারের সদস্যরা। কিন্তু বৃহন্নলারা সাফ জানিয়েছিল যে, অন্তত পক্ষে ৫০০ টাকা না দেওয়া হলে বাচ্চাটিকে দেওয়া হবে না। দীর্ঘ টানাপোড়েনের পর যখন শিশুটিকে মায়ের কাছে দেওয়া হয়, ততক্ষণে মৃত্যু হয়েছে তার।

পুলিশের তরফে জানানো হয়েছে, ঘটনার তদন্ত শুরু করা হয়েছে। বৃহন্নলাদের অত্যাচারের জেরেই শিশুটির এই পরিণতি কি না খতিয়ে দেখা হবে। এদিকে সদ্যোজাতে মৃত্যুতে কান্নায় ভেঙে পড়েছে পরিবার। অভিযুক্তদের শাস্তির দাবি জানিয়েছেন তাঁরা।

 

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on telegram
Share on whatsapp
Share on email
Share on reddit
Share on pinterest