A young boy died after running train hit him during video recording in hoogly

রেললাইনের ধারে ভিডিয়ো শ্যুট, ট্রেনের ধাক্কায় কিশোরের মৃত্যু

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on telegram
Share on whatsapp
Share on email
Share on reddit
Share on pinterest

দশমীর বিকেলে রেল লাইনে ভিডিয়ো শ্যুট করতে গিয়ে মৃত্যু হল এক কিশোরের। নিহত ধীরজ পটেল (১৬) ভদ্রেশ্বর রেল কলোনির বাসিন্দা।

ট্রেন লাইনের পাশে দাঁড়িয়ে ভিডিয়ো করছিল দুই বন্ধু। তারা ছিল লাইনের থেকে কিছুটা দূরত্বে। আর লাইনের একেবারে পাশে দাঁড়িয়ে ছিল তৃতীয় জন। ভিডিয়োয় মগ্ন তিনজনের কেউ খেয়াল করেনি, তীব্র গতিতে ছুটে আসছে ট্রেন। মুহূর্তের ভুলে সেই ট্রেনই ধাক্কা মারল লাইনের কাছে দাঁড়িয়ে থাকা কিশোরটিকে। ছিটকে পড়ল দেহ। রক্তাক্ত অবস্থায় তাকে দেখা গেল সেই ভিডিয়োতেই।

পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে,  দশমীর দিন বিকেলে ধীরজ ও তার দুই বন্ধু মিলে রেল লাইনের ধারে একটি ভিডিয়ো করতে যায়। কিন্তু সেই ভিডিয়ো রেকর্ডিং করার সময়েই আপ তিন নম্বর লাইনে ব্যান্ডেলগামী একটি লোকাল ট্রেন তীব্র গতিতে ছুটে আসছিল। ভিডিয়োয় দেখা গিয়েছে, একাধিকবার হর্ন বাজিয়েছিলেন চালক। কিন্তু তাতেও হুঁশ ফেরেনি ধীরজদের। পিছন থেকে এসে ধাক্কা মারে ট্রেন।

হাসপাতাল সূত্রে খবর, ঘটনাস্থলেই মৃত্যু হয় কিশোরের। শেওড়াফুলি জিআরপি মৃতদেহ উদ্ধার করে শ্রীরামপুর হাসপাতালে নিয়ে যায়। সেখান থেকে দেহ ময়নাতদন্তে পাঠানো হয়। স্থানীয়রা জানিয়েছেন, ওই কিশোর ও তার বন্ধুরা মাঝেমাঝেই ওই জায়গায় এসে গল্পগুজব করতো, ছবি তুলত। দুর্ঘটনার আশঙ্কায় তাদের সতর্ক করা হয়েছিল। কিন্তু কাজ হয়নি। এদিনও ট্রেন দেখে সবাই চিৎকার করে তাদের সতর্ক করেছিলেন। কিন্তু সেই আওয়াজ কানে যায়নি কারও। এমনকী ট্রেনের হর্নের আওয়াজও শুনতে পায়নি তারা।

পরিবারের তরফ থেকে জানানো হয়েছে, বিভিন্ন সময় ঝুঁকি নিয়ে নেটমাধ্যমের জন্য ভিডিয়ো তৈরি করার অভ্যাস ছিল ধীরজের। তার বন্ধুদের থেকে একটি মোবাইল ফোন বাজেয়াপ্ত করেছে পুলিশ।

 

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on telegram
Share on whatsapp
Share on email
Share on reddit
Share on pinterest