CPI (ML) Liberation: primary task now is to defeat the bjp, cpiml liberation said at a press conference

CPI (ML) Liberation: ‘বিজেপিকে হারাতে যাকে খুশি ভোট দিন’, বিমানের দাবি উড়িয়ে বাংলায় দলের অবস্থান জানাল লিবারেশন

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on telegram
Share on whatsapp
Share on email
Share on reddit
Share on pinterest

গেরুয়া শিবিরকে হারাতে যাকে খুশি ভোট দিন। এমনটাই বলছে সিপিআই (এমএল) লিবারেশন। লক্ষণীয়, বাংলায় বামফ্রন্ট প্রার্থীদের লিবারেশন সমর্থন করবে বলে আশাপ্রকাশ করেছিলেন ফ্রন্ট চেয়ারম‌্যান বিমান বসু। এদিন সেই দাবি খারিজ করে দিলেন লিবারেশনের সর্বভারতীয় সাধারণ সম্পাদক দীপঙ্কর ভট্টাচার্য। জানালেন, ‘ইন্ডিয়া’ জোটের অংশ হিসেবে জোট ধর্ম মেনে চলবে তারা।

মঙ্গলবার মৌলালিতে লিবারেশন রাজ্য কমিটির দফতরে লোকসভা ভোটের ইস্তাহার প্রকাশ করা হয়। উপস্থিত ছিলেন দলের সাধারণ সম্পাদক দীপঙ্কর ভট্টাচার্য। তিনি বলেছেন, ‘‘বিজেপিকে হারানোটাই এখন প্রাথমিক রাজনৈতিক কাজ বলে আমরা মনে করি। কারণ, তৃতীয় বার যদি নরেন্দ্র মোদী সরকার ক্ষমতায় চলে আসে, তা হলে গণতন্ত্রের ‘গ’, সংবিধানের ‘স’ কিছুই আর অবশিষ্ট থাকবে না।’’

পশ্চিমবঙ্গের ৪২টি আসনের মধ্যে মাত্র একটিতে লড়াই করছে লিবারেশন। মঙ্গলবার মৌলালির দপ্তরে সাংবাদিক সম্মেলন করে বর্ধমান পূর্ব কেন্দ্রের প্রার্থী হিসেবে সজল কুমার দে-র নাম ঘোষণা করেছে দলটি। এদিন, দলের সর্বভারতীয় সাধারণ সম্পাদক দীপঙ্কর ভট্টাচার্য স্পষ্ট বলেন, “পশ্চিমবঙ্গে বিজেপিকে যারা হারাতে পারবে বা যে দলকে ভোট দিলে বিজেপি হারবে সেটা বাম, কংগ্রেস বা তৃণমূল যেই হবে যাকে মানুষ উপযুক্ত মনে করবে তাকে ভোট দেবে। এটা আমরা মানুষের সিদ্ধান্তের উপরই ছেড়ে দিলাম। এ রাজ্যে তৃণমূল যদি বিজেপিকে হারাতে পারে তাহলে তৃণমূলকেও স্বাগত।”

সপ্তাহ দেড়েক আগে বামফ্রন্টের এক দফা প্রার্থিতালিকা ঘোষণার সময়ে ফ্রন্ট চেয়ারম্যান বিমান বসু দাবি করেছিলেন, লিবারেশন একটি বা দু’টি আসনে প্রার্থী দেবে। বাকি আসনে তারা বামপন্থী প্রার্থীদের সমর্থন করবে। কিন্তু দীপঙ্কর মঙ্গলবার বলেন, ‘‘বিমানদা কী বলেছেন জানি না। তবে আমরা বলেছি বিজেপিকে হারাও। কাউকে ভোট দেওয়ার কথা বলছি না।’’

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on telegram
Share on whatsapp
Share on email
Share on reddit
Share on pinterest