Dead bodies of a couple recovered from the airport area of Maldah

ঝোপের মধ্যে থেকে যুগলের দেহ! রহস্যমৃত্যু ঘিরে চাঞ্চল্য ইংরেজবাজারে

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on telegram
Share on whatsapp
Share on email
Share on reddit
Share on pinterest

মালদহের ইংরেজবাজারের বিমানবন্দর সংলগ্ন এলাকায় জোড়া মৃতদেহ উদ্ধার ঘিরে চাঞ্চল্য ছড়াল। মঙ্গলবার সকালে ওই এলাকায় এক তরুণ এবং এক তরুণীর দেহ দেখতে পান স্থানীয় বাসিন্দারা। তাঁরা খবর দেন পুলিশে। পুলিশ দেহগুলি উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য পাঠিয়েছে। নিহত তরুণের পরিবারের অভিযোগ, ওই যুগলকে খুন করা হয়েছে। তবে প্রাথমিক ভাবে পুলিশের ধারণা, দুর্ঘটনার জেরে ওই কাণ্ড ঘটেছে।

মৃত যুবকের নাম রনি দাস (২২) আর যুবতীর নাম শাম্বিকা রায় (১৯)। দেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের (Post Mortem) জন্য পাঠিয়েছে পুলিশ (Police)।

প্রতিদিন ওই এলাকায় প্রাতঃভ্রমণ করেন কয়েকজন। আজ সকালে সবার প্রথমে ওই দেহ দুটি তাঁদেরই নজরে আসে। রক্তাক্ত অবস্থায় মৃতদেহ দুটি পড়ে থাকতে দেখেন স্থানীয়রা। পাশেই পড়ে ছিল একটি মোটরবাইক। এই খবর দ্রুত ছড়িয়ে পড়ে এলাকায়। খবর পেয়েই ঘটনাস্থলে পৌঁছায় ইংরেজবাজার থানায় (English Bazar Police Station) পুলিশ। রনির বাড়ি ইংরেজবাজারের বাগবাড়ির দুর্গাপল্লি এলাকায়। স্থানীয় আইটিআই কলেজের পড়ুয়া ছিলেন তিনি। আর শাম্বিকা ইংরেজবাজারের তেলিপুকুর এলাকার বাসিন্দা। মালদহ কলেজের প্রথম বর্ষের ছাত্রী ছিলেন তিনি।

সোমবার রাত থেকেই নিখোঁজ ছিলেন রনি। যদিও ওই যুবতী তাঁদের পরিচিত নয় বলেই জানিয়েছেন তাঁরা। একইভাবে সোমবার রাত থেকে নিখোঁজ ছিলেন শাম্বিকাও। এরপর আজ সকালে তাঁদের মৃতদেহ উদ্ধার করা হয়। দু’জনেই সোমবার রাতে বাড়ি থেকে বেড়িয়ে ছিলেন, কিন্তু তারপর আর বাড়ি ফেরেননি। সকালবেলা খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পৌঁছে শাম্বিকার মৃতদেহ শনাক্ত করেন তাঁরা। যদিও মৃত যুবককে তাঁরা চেনেন না বলে জানিয়েছেন।

যদিও মালদহের ডিএসপি ডিএসপি হেড কোয়ার্টার প্রশান্ত দেবনাথ বলেন, ‘‘আপাত দৃষ্টিতে মনে হচ্ছে এটা দুর্ঘটনা। এখানে বাইক রয়েছে। মনে হচ্ছে বাইকটা ভারসাম্য হারিয়ে ফেলার জেরেই দুর্ঘটনা ঘটেছে। কী ভাবে এখানে ওঁরা বাইক নিয়ে এলেন, তা খতিয়ে দেখা হচ্ছে। বাইকটা প্রায় ৭০ মিটার ঘষটে এসেছে।’’ তরুণ এবং তরুণীর দেহে আঘাতের চিহ্ন রয়েছে। তা কী ভাবে হল জানতে তদন্তকারীরা আপাতত ময়নাতদন্ত রিপোর্টের দিকে তাকিয়ে।

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on telegram
Share on whatsapp
Share on email
Share on reddit
Share on pinterest