Police arrested the son of a TMC leader on the charge of cybercrime

পুলিশ কর্তার মেয়ের মোবাইল নম্বর দিয়ে আপত্তিকর পোস্ট, গ্রেফতার তৃণমূল নেতার ছেলে

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on telegram
Share on whatsapp
Share on email
Share on reddit
Share on pinterest

বাবা ডিএসপি পদমর্যাদার অধিকারিক। তার মেয়েকেই  লাগাতার হেনস্তার অভিযোগ পুরসভার তৃণমূল কো-অর্ডিনেটরর ছেলের বিরুদ্ধে। অবশেষে রবিবার অভিযুক্ত যুবককে গ্রেফতার করল পুলিশ। গ্রেফতারের জন্য পুলিশকে ধন্যবাদ জানিয়েছেন ভুক্তভোগী পুলিশকর্তা। সুবিচারের আশা দেখছেন তিনি।

ধৃত উত্তরপাড়া (Uttaroara) কোতরং পুরসভার ১০ নম্বর ওয়ার্ডের তৃণমূল (TMC) কো-অর্ডিনেটর দীপক কুণ্ডুর ছেলে অর্কদীপ কুণ্ডু। বিধান নগর সাইবার ক্রাইম থানার পুলিশ তাঁকে গ্রেফতার করে।

ঘটনাটি মাস খানেক আগের। সল্টলেকের বাসিন্দা ওই পুলিশ কর্তার মেয়ের অভিযোগ, অন্য মহিলার ছবির সঙ্গে তাঁর মোবাইল নম্বর জুড়ে ফেসবুক, হোয়াটসঅ্যাপে আপত্তিকর পোষ্ট ছড়িয়েছিলেন অর্কদীপ। তিনি তাঁর প্রাক্তন সহপাঠী। অভিযোগকারী ছাত্রীর বক্তব্য, “প্রথমে বিশেষ আমল দিই নি। তবে দেখি এসব সোশ্যাল মিডিয়ায় ছড়িয়ে দেওয়া হয়েছে। বিভিন্ন জায়গা থেকে ফোন আসতে শুরু করে। বিভিন্ন বাজে প্রস্তাব দেওয়া হয়। মানসিক ভাবে ভেঙে পড়েছিলাম।”

আরও পড়ুন: নকল স্বর্ণমুদ্রা গছিয়ে তৃণমূল নেতার কাছ থেকে ১২ লক্ষ টাকা নিয়ে চম্পট দিল প্রতারকরা

গত ১২ জুন বিধাননগর সাইবার থানায় অভিযোগ দায়ের করা হয়। তার প্রায় এক মাসের মাথায় শনিবার রাতে বারাসতের নবপল্লির একটি আবাসনে বিধাননগর কমিশনারেটের সাইবার ক্রাইম বিভাগ এবং বারাসত থানার পুলিশ যৌথ ভাবে হানা দেয়। ওই আবাসনেই অর্কদীপ আত্মগোপন করেছিলেন বলে জানা গিয়েছে।

এদিকে, এই ঘটনার প্রতিবাদে উত্তরপাড়ার বিভিন্ন এলাকায় পোস্টার মেরেছে ডিওয়াইএফআই ও গণতান্ত্রিক মহিলা সমিতি। অভিযুক্তের উপযুক্ত শাস্তির দাবি তুলেছেন তাঁরা।অন্যদিকে উত্তরপাড়ায় তৃণমূল কো-অর্ডিনেটরের বাড়িতে গিয়ে দেখা মিলল না তাঁর। যদিও এর আগেই তিনি বিষয়টি কার্যত স্বীকার করে নিয়েছিলেন। ছেলে এমন কিছু করেছে, কো-অর্ডিনেটরের কাছে এটা আশ্চর্যের কিছু নয়। আগেই তিনি জানিয়েছিলেন, পুলিশ তাদের বাড়ি গিয়েছিল। জিজ্ঞাসাবাদ করেছে। তাঁদের থানায় ডেকে পাঠানো হয়েছিল। তদন্তে তিনি সাহায্য করেছিলেন। এমনকী এটাও দাবি করেছিলেন, ছেলের উপর তার কোনও প্রভাব নেই। তাই অন্যায় করলে শাস্তি পেতে হবে বলে মেনে নিয়েছেন তিনি।

আরও পড়ুন: Babul Supriyo: রাজনীতি না বিজেপি, কোনটা ছাড়ছেন বাবুল! জোর জল্পনা

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on telegram
Share on whatsapp
Share on email
Share on reddit
Share on pinterest