TMC MP Abhishek Banerjee Eye Operation Held In America-

Abhishek Banerjee: ৭ ঘণ্টা ধরে অস্ত্রোপচার অভিষেকের চোখে, উৎকন্ঠায় কাটালেন মুখ্যমন্ত্রী

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on telegram
Share on whatsapp
Share on email
Share on reddit
Share on pinterest

আমেরিকায় অভিষেকের বন্দ্যোপাধ্যায়ের চোখে অস্ত্রোপচার হল। এই অস্ত্রোপচার করতে ৭ ঘণ্টা সময় লেগেছে বলে খবর। আর এই সময়সাপেক্ষ অপারেশন নিয়ে কালীঘাটের বাসভবনে উদ্বেগে ছিলেন স্বয়ং মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

অভিষেক এথন তৃণমূল কংগ্রেসের সর্বভারতীয় সাধারণ সম্পাদক। তাছাড়া ডায়মন্ডহারবারের সাংসদ। বিগত ছ’বছর ধরে চোখের সমস্যায় ভুগছেন তিনি। সেই সংক্রান্ত একটি অস্ত্রোপচার করাতে আমেরিকা গিয়েছেন অভিষেক।বুধবার ভারতীয় সময় সন্ধে নাগাদ অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের চোখে অস্ত্রোপচার করা হয়। জানা গিয়েছে, প্রায় সাত ঘন্টা ধরে চলে অস্ত্রপচার। চিকিৎসকরা প্রাথমিকভাবে মনে করছেন অপারেশন সফল হয়েছে। তবে এখনই হাসপাতাল থেকে ছাড়া পাচ্ছেন না অভিষেক।

উল্লেখ্য, ২০১৬ সালের ১৯ অক্টোবর মুর্শিদাবাদে একটি কর্মীসভা সেরে ফিরছিলেন অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়। সেই সময়ে সিঙ্গুরের কাছে দুর্গাপুর এক্সপ্রেসওয়েতে দুর্ঘটনার কবলে পড়েছিল তাঁর গাড়ি। অভিষেক তাঁর বাম চোখের নিচে গুরুতর আঘাত পান। চোখের নিচের হাড় ভেঙে যায়। তড়িঘড়ি কলকাতায় এনে তাকে ভর্তি করা হয় বেলভিউ হাসপাতালে।

আরও পড়ুন: Jalpaiguri: মালবাজারে হড়পা বানে মৃত বেড়ে ৮, বাতিল হল জলপাইগুড়ি দুর্গা কার্নিভাল

অভিষেক ঘনিষ্ঠদের একাংশের মতে, প্রাথমিকভাবে চিকিৎসায় কিছু গাফিলতি ছিল। ফলে চোখের চিকিৎসার জন্য তাকে বারবার কলকাতাঁর বাইরে যেতে হয়েছে। এর আগে ২০২০ সালে জানুয়ারিতে তাঁর চোখে একটি অস্ত্রোপচার হয়। ওই অস্ত্রোপচারের পর তৃণমূল নেতাকে কিছুদিন বাড়িতে থেকে বিশ্রাম নেওয়ার পরামর্শ দিয়েছিলেন চিকিৎসকরাও। মূলত চোখে রোদ লাগাতে বারণ করেছিলেন তাঁরা। কিন্তু ওই অস্ত্রোপচারের পরেও পুরোপুরি সেরে ওঠেননি অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়। ফলতো এর পরেও হায়দরাবাদের চিকিৎসার জন্য যেতে হয় তাকে।

তারপর গতকাল তাঁর চোখে সপ্তম অস্ত্রপচারটি হল। অভিষেকের সঙ্গে তাঁর স্ত্রী রুজিরা নারুলাও আমেরিকা গিয়েছেন বলে খবর। এদিকে কলকাতায় উদ্বেগে রয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। বুধবার দুপুরে সাংবাদিকদের সঙ্গে একটি ঘরোয়া বৈঠকে সেই কথা প্রকাশ করেছিলেন তৃণমূল সুপ্রিমো। বলেছিলেন, “ছেলেটি খুব ভুগছে। ঠাকুরের কৃপায় এবার অপারেশনটা ভালো হলেই ভালো। না হলে ওর দৃষ্টিশক্তি নিয়ে সমস্যা দেখা দিতে পারে।”

আরও পড়ুন: Adani Group: বিজয়াতে শিল্পদিশা, আদানিকে তাজপুরে ১৫ হাজার কোটির বন্দর নির্মাণের অনুমতি মমতার

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on telegram
Share on whatsapp
Share on email
Share on reddit
Share on pinterest