west bengal govt extends covid-19 restrictions to 31 december

বাড়ছে Omicron উদ্বেগ, ১৫ ডিসেম্বর পর্যন্ত রাজ্যে নাইট কারফিউ জারি রাখল নবান্ন

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on telegram
Share on whatsapp
Share on email
Share on reddit
Share on pinterest

গোটা দেশে করোনা সংক্রমণ অনেকটাই নিয়ন্ত্রণে। কিন্তু এর মধ্যেই উদ্বেগ বাড়াল করোনার নতুন প্রজাতি ওমিক্রন। ভারতে এখনও এই প্রজাতির সংক্রমণ ঘটেনি। তবু এখনই লাগাম ঢিলে দিতে চাইছে না প্রশাসন। কেন্দ্র সরকার আগামী ৩১ ডিসেম্বর পর্যন্ত করোনা বিধি জারি রেখেছে দেশে। নবান্নও একই পথে হাঁটল। আগামী ১৫ ডিসেম্বর পর্যন্ত রাজ্যে জারি থাকবে কোভিড বিধিনিষেধ। রাত্রিকালীন বিধিনিষেধও চলবে।

মঙ্গলবার পশ্চিমবঙ্গ সরকারের তরফে বিজ্ঞপ্তি জারি করে জানানো হয়েছে, করোনাভাইরাস সংক্রান্ত মহামারী এবং ওমিক্রন বা করোনাভাইরাসের নয়া প্রজাতি বি.১.১.৫২৯ সংক্রান্ত উদ্বেগের কারণে বিধিনিষেধ আরও ১৫ দিন বজায় রাখার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। জারি থাকছে রাত্রিকালীন বিধিনিষেধ। বাকি সব নিয়মের কোনও হেরফের হয়নি। ৫০ শতাংশ যাত্রী নিয়ে চলবে লোকাল ট্রেন। চলবে মেট্রো। দোকানপত্রও আগের মতোই খোলা থাকবে। স্কুল আপাতত নবম থেকে দ্বাদশ শ্রেণির পড়ুয়াদের জন্য স্কুল খোলা থাকবে।

আরও পড়ুন: ’নফরত জিত গ্যায়া, আর্টিস্ট হার গ্যায়া’ বেঙ্গালুরু শো বাতিলে ফুঁসে উঠলেন মুনাওয়ার ফারুকি

দেশে আপাতত ওমিক্রন নিয়ে ভীতি থাকায় মঙ্গলবার রাতেই প্রত্যেক রাজ্য ও কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলে চিঠি পাঠায় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রক। চিঠিতে বলা হয়েছে, ‘গত ২১ সেপ্টেম্বর কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রকের তরফ থেকে নতুন ভ্যারিয়েন্ট সংক্রান্তে যে নির্দেশিকা পাঠানো হয়েছে, তার মেয়াদ বাড়িয়ে ৩১ ডিসেম্বর করা হল। প্রতিটি বিমানবন্দরের আন্তর্জাতিক টার্মিনালে যে সব যাত্রী অবতরণ করবেন, তাঁদের করোনা পরীক্ষা বাধ্যতামূলক।

এই বিষয়ে কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রকের যে নির্দেশিকা রয়েছে, সেই নির্দেশিকা মেনে চলতে হবে। যে সব যাত্রীর রিপোর্ট পজিটিভ আসবে, তাঁরা নতুন ভ্যারিয়েন্টে আক্রান্ত কি না, তা নিশ্চিত করতে সংগৃহীত নমুনা দ্রুত জেনোম পরীক্ষার জন্য পাঠাতে হবে INSACOG জেনোম সিকোয়েন্স ল্যাবে। পরীক্ষার রিপোর্ট পাঠাতে যাতে অযথা দেরি না হয়, সে ব্যাপারে রাজ্য নিযুক্ত সার্ভিল্যান্স অফিসারকে নজর রাখতে হবে। প্রতিনিয়ত ল্যাবের সঙ্গে যোগাযোগ রাখতে হবে। পরীক্ষার রিপোর্ট পজিটিভ হলে সংশ্লিষ্টের ক্ষেত্রে দ্রুত পদক্ষেপ করতে হবে।’

আরও পড়ুন: Parliament Fire: সংসদ ভবন চত্ত্বরে আগুন, ছড়াল চরম আতঙ্ক

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on telegram
Share on whatsapp
Share on email
Share on reddit
Share on pinterest