করোনায় মৃত্যু হলেও এবার থেকে শেষ দেখা দেখতে পাবে আত্মীয়রা, সিদ্ধান্ত রাজ্যের

কলকাতা: করোনায় মৃত্যুর ক্ষেত্রে বড় সিদ্ধান্ত রাজ্যের। এখন থেকে কারোনায় কারও মৃত্যু হলে পরিবারের লোক তাঁকে শেষ দেখা দেখতে পাবেন।রাজ্য সরকার জানিয়েছে, দাহ করার আগে দূর থেকে পরিবারের লোকদের শেষ দেখা দেখতে দেওয়া হবে। সমস্ত সরকারি ও বেসরকারি হাসপাতালে একই নিয়ম প্রযোজ্য হবে।  

আরও পড়ুন: ‘১৫ দিনই যথেষ্ট’, ঘরে ফেরাতে হবে বাকি পরিযায়ীদেরও, সরকারকে সময় বেঁধে দিল সুপ্রিম কোর্ট

দেহের উপর অংশ, মাথা থেকে বুক অবধি ট্রান্সপারেন্ট শিল্ড দিয়ে ঢাকা থাকবে। যাতে বাড়ির মানুষ ওই ব্যক্তিতে দেখতে পায়।  এতদিন করোনায় মৃত্যুর ক্ষেত্রে বাড়ির লোকের দেখার অনুমতি ছিল না। নির্দিষ্ট বিধি মেনে প্রশাসনের তরফেই মৃতদেহের সৎকারের ব্যবস্থা করা হত।  

এদিন রাজ্য সরকার জানিয়েছে, সরকারি হাসপাতালের তুলনায় বেসরকারি হাসপাতালে কোভিডে মৃত্যুর হার বেশি। রাজ্য সরকারের অডিট টিম তাই বেসরকারি হাসপাতালে পরিকাঠামো পরিদর্শনে যাবে।

রাজ্য স্বাস্থ্য দফতর সূত্রে জানা গিয়েছে, যে হাসপাতালে রোগী মারা যাবেন, সেখানেই পরিবারের সদস্যদের মৃতদেহ দেখার সুযোগ করে দেওয়া হবে৷ তবে তা করা হবে যাবতীয় সতর্কতা মেনেই৷ হাসপাতালের মধ্যে একটি নির্দিষ্ট জায়গায় নিরাপদ দূরত্ব থেকে মৃতদেহ দেখতে পাবেন পরিজনরা৷ পরিবারের সদস্যরা যাতে প্রিয়জনকে শেষবারের মতো দেখতে পান, তার জন্য স্বচ্ছ প্লাস্টিকের ব্যাগে ভরা থাকবে বলেও জানানো হয়েছে৷

আরও পড়ুন: নেই মাস্ক, নেই ছ’ ফুটের দূরত্ব বিধি! স্বাস্থ্যবিধিকে বুড়ো আঙুল দেখিয়ে পুরীতে সম্পন্ন জগন্নাথ দেবের স্নানযাত্রা

Gmail