Addicted to Marriage! 52-Year-Old Woman Who's Been Married 11 Times Ready For The 12th Husband

প্রেম করার সময় সেক্সের ইচ্ছা হলেই বিয়ে! ৫২ বছরে ১২ ছাদনাতলায় এই মহিলা

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on telegram
Share on whatsapp
Share on email
Share on reddit
Share on pinterest

বেশি বয়সে বিয়ে! ভারতে এ যেন এক বিশাল ব্যাপার। কিন্তু আমেরিকায় কোনও বিষয়ই নয়। ঠিক যেমনটা করার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন আমেরিকার বাসিন্দা মোনেট্টে। ৫২ বছর বয়সে ফের বিয়ে করছেন তিনি। ইতিমধ্যে ১১টি বিয়ে করে ফেলেছেন তিনি। এটা ১২ নম্বর বিয়ে।

TLC-র নতুন রিয়েলিটি সিরিজ ‘অ্যাডিক্টেড টু ম্যারেজ’-এ উঠে এসেছে এমনই এক মার্কিন মহিলার কাহিনী। বছর ৫২-র মোনেট্টে ডায়াস একজন ইন্টেরিয়র ডিজাইনার, এই নিয়ে তিনি মোট ১১ বার বিয়ে করেছেন। কোনওটাই দীর্ঘস্থায়ী হয়নি। তবে হার মানতে নারাজ তিনি। আরও একটি চুটিয়ে প্রেম করছেন তিনি। তাঁর এই বয়ফ্রেন্ডকেই ১২ নম্বর স্বামী হিসেবে পেতে চান তিনি।

হাইস্কুলের গণ্ডি টপকানোর পরপরই প্রথমবার বিয়ে করেন মোনেট্টে। কেন এমনটা করেন? কারণ ব্যাখ্যা করেছেন মোনেট্টে নিজেই। তিনি বলেন, হাইস্কুল পাশ করার পর দাদার এক বন্ধুকে তিনি বিয়ে করেন। এরপর থেকে ১১ জনকে বিয়ে করেছেন তিনি। কারণ তাঁর কোনও বিয়েই বেশি দিন টেকেনি।

এখনও পর্যন্ত ২৮ জন তাঁকে প্রেমের প্রস্তাব দিয়েছেন। মোনেট্টের হবু স্বামীর বর্তমান বয়স ৫৭। নাম জন। গত দু’বছর ধরে জনের সঙ্গে প্রেম করছেন তিনি। জানলে অবাক হবেন, এর আগে জনকেই দু’বার বিয়ে করেছেন মোনেট্টে। এবার তৃতীয়বার বিয়ের প্রস্তুতি নিচ্ছেন তাঁরা।  তাঁর এই বয়ফ্রেন্ডকেই ১২ নম্বর স্বামী হিসেবে পেতে চান তিনি। ‘আমি এক গোঁড়া খ্রিস্টান পরিবারে বড় হয়েছি। আমাদের বিয়ের বাইরে সেক্স করা নিষেধ। তাই সেটা করার জন্য, আমায় বিয়ে করতে হয়েছে,’ জানিয়েছেন মোনেট্টে ডায়াস।

আরও পড়ুন: মার্কিন মুলুকে মর্মান্তির ঘটনা, ক্রিসমাস প্যারেডে জনতাকে পিষে দিল বেপরোয়া গাড়ি, হতাহত বহু

তাঁর ১১টি বিয়ের মধ্যে সাতটি বিয়ের পিছনে এটাই ছিল মূল কারণ, জানালেন তিনি। ‘ধরুন কয়েক মাস ধরে কারও সঙ্গে ডেটিং করলাম। শেষমেশ যখন সেক্সের ইচ্ছা হবে, তখন সরাসরি বিয়েই করে নিয়েছি,’ স্বীকারোক্তি তাঁর। তবে শুধুমাত্র শারীরিক চাহিদার কারণেই তিনি বিয়ে করেন না, মনে করিয়ে দিলেন মোনেট্টে। তাঁর কথায়, ‘আমি এখনও ভালবাসায় বিশ্বাসী। আমার প্রাক্তনদের প্রত্যেককেই আমি ভালবেসেছিলাম। আমি আসলে একটা ভাল লাগার মুহূর্তে ভেসে যাই, সহজেই প্রেমে পড়ে যাই।’

তাঁর সংক্ষিপ্ততম বিয়ে মাত্র ছয় সপ্তাহ স্থায়ী হয়েছিল। অন্যদিকে তাঁর দীর্ঘতম বিয়ে প্রায় ১০ বছর টিকেছিল। আজও মোনেট্টার কাছে সেরা তাঁর পঞ্চম স্বামী। তবে ষষ্ঠ স্বামীও খারাপ ছিলেন না। অষ্টম স্বামীর সঙ্গে অনলাইনে তাঁর সাক্ষাৎ হয়েছিল। দশম স্বামীকে স্কুল থেকেই চিনতেন তিনি।

আরও পড়ুন: ওমিক্রন রুখতে নয়া ভ্যাকসিন তৈরির সিদ্ধান্ত, আনছে Novavax

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on telegram
Share on whatsapp
Share on email
Share on reddit
Share on pinterest