মাছের ঝোলের পর এবার ফুচকা বানিয়ে Masterchef-এ তাক লাগালেন বঙ্গতনয়া কিশোয়ার

কিশোয়ার তাঁর অন্য একটি পোস্টে লেখেন, বাঙালি স্ট্রিট ফুড তাঁর বরাবরই খুব পছন্দের।
Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on telegram
Share on whatsapp
Share on email
Share on reddit
Share on pinterest

বাঙালির স্ট্রিট ফুডের জয় জয়কার বিশ্বের সর্বত্র। এত কম দামে এমন সুস্বাদু খাবার পৃথিবীর আর কোথাও পাওয়া যায় না। বিশেষত ফুচকা। আলু, মটর, ছোলা আর তেঁতুল জলের স্বাদ হল বাঙালির True love। আর এই ফুচকাই এবার মন জয় করল অস্ট্রেলিয়ায়। কিছুদিন আগেই অস্ট্রেলিয়া মাস্টারশেফে ( Australia Masterchef) মাছের ঝোল রেঁধে খাইয়ে তাক লাগিয়ে দিয়েছিলেন বিচারকদের। আর এবার তিনি বানালেন ফুচকা।

রান্নার প্রতি এই বঙ্গতনয়া কিশোয়ার চৌধুরির (Kishwar Chowdhury)ঝোঁক অনেকদিনের। জন্মসূত্রে বাংলাদেশের বাসিন্দা হলেও কর্মসূত্রে বহু বছর ধরেই তিনি অস্ট্রেলিয়ার বাসিন্দা। কিশোয়ার ( Kishwar Chowdhury) রান্না করতে ভালোবাসেন। সেই সঙ্গে খাওয়াতেও। বাঙালি রান্না তাঁর বিশেষ পছন্দের। পরবর্তীতে রান্না নিয়ে একটি বইও লিখতে চান তিনি। এছাড়াও কিশোয়ার জানান, এর আগে মাছের ঝোল রান্না করে তিনি প্রথম পরীক্ষা দিয়েছেন ছেলে-মেয়ের কাছে। পরবর্তীতে বাংলা রান্না নিয়ে বই লিখতে চান তিনি। এই প্রতিযোগিতায় বেশ কয়েকটি পর্ব পেরিয়ে এসেছেন কিশোয়ার।

আরও পড়ুন: করোনা ভ্যাকসিন নিলে গরু ফ্রি, চালু করেছে এই দেশ

কিশোয়ার তাঁর ইন্সটাগ্রামে লেখেন, ‘আজকের পরীক্ষায় আমি বাংলার স্ট্রিট ফুডের পসরা সাজিয়েছিলাম। কিন্তু সঙ্গে একটা ট্যুইস্ট রেখেছিলাম। এদিন আমার মূল উপকারণ ছিল আলু। আলু দিয়ে ফুচকা, সিঙ্গারা আর চটপটা (চুরমুর) বানিয়েছিলাম’। কিশোয়ার আলুর সঙ্গে টক, ঝাল মশলার ট্যুইস্ট দিয়েছিলেন। তাতেই তিনি মন জিতে নিয়েছেন বিচারকদের।

কিশোয়ার তাঁর অন্য একটি পোস্টে লেখেন, বাঙালি স্ট্রিট ফুড তাঁর বরাবরই খুব পছন্দের। সে ঢাকা হোক বা কলকাতা। আর এই খাবারের টানেই প্রতি বছর ঢাকায় আসেন। তিনি এখন কলকাতা আর ঢাকা খুব মিস করেন। তবে যেদিনই আসবেন সেদিনই মন ভরে কলকাতার স্ট্রিট ফুড খাবেন।

তবে গ্লোবাল প্ল্যাটফর্মকে বাংলা খাবারকে তুলে ধরার এই প্রচেষ্টা তিনি চালিয়ে যাবেন। আর তাই তো কখনও কষা মাংস আর রুটি, চিংড়ি ভর্তা, মাছ ভাজা, মাছের ঝোল এসবই বানিয়েছেন Australia Masterchef-এ। আর এই সাধারণ বাঙালি খাবারেই বিচারকদের প্রশংসা কুড়িয়েছেন তিনি।

আরও পড়ুন: প্রথমবার মুখোমুখি হচ্ছেন বাইডেন-পুতিন, তাকিয়ে গোটা বিশ্ব

 

 

 

 

 

 

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on telegram
Share on whatsapp
Share on email
Share on reddit
Share on pinterest