Bangladesh PM Sheikh Hasina invites West Bengal CM Mamata Banerjee to visit newly-constructed Padma Bridge

Padma bridge: পদ্মা সেতু দেখতে যাওয়ার জন্য ‘ছোট বোন’ মমতাকে চিঠি হাসিনার

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on telegram
Share on whatsapp
Share on email
Share on reddit
Share on pinterest

এশিয়ার অন্যতম দীর্ঘ পদ্মা সেতু দেখার জন্য বাংলাদেশ সফরে পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে (Mamata Banerjee) আমন্ত্রণ জানালেন বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনা। মঙ্গলবার বিকালে ঢাকা থেকে নবান্নে মুখ্যমন্ত্রীকে পাঠানো আমন্ত্রণপত্রে বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী লিখেছেন,”আপনার সুবিধাজনক সময়ে বাংলাদেশ সফরের জন্য আমন্ত্রণ রইল। আগামী সেপ্টেম্বরে আমার নির্ধারিত নয়াদিল্লি সফরকালে আপনার সাথে সাক্ষাতের সুযোগ সৃষ্টি হবে বলে আশা রাখি।”

সম্প্রতি জনসাধারণের যাতায়াতের জন্য খুলে দেওয়া হয়েছে বাংলাদেশের পদ্মা সেতু। সেই সেতু নিয়ে বাংলাদেশের পাশাপাশিই এপার বাংলাতেও সাড়া পড়েছে। মমতাকে হাসিনা সামগ্রিক ভাবে বাংলাদেশে যাওয়ার আমন্ত্রণ জানিয়েছেন। কিন্তু তাঁর চিঠিতে পদ্মা সেতুর উল্লেখ দেখে মনে করা হচ্ছে, সেই সেতু দেখতে যাওয়ার জন্যও মুখ্যমন্ত্রী মমতাকে আমন্ত্রণ জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী হাসিনা। চিঠিতে হাসিনা লিখেছেন, ‘আপনি ইতোমধ্যে জেনেছেন, নিজস্ব অর্থায়নে পদ্মা বহুমুখী সেতু নির্মাণের মাধ্যমে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের প্রদর্শিত পথে আত্মনির্ভরশীল সোনার বাংলা বিনির্মাণে বাংলাদেশ আরও একধাপ এগিয়ে গিয়েছে। এই সেতু বাংলাদেশের সঙ্গে পশ্চিমবঙ্গ তথা সমগ্র ভারতের আত্মিক বন্ধনকে আরও দৃঢ় করবে ও বাণিজ্যিক সম্পর্কে সম্ভাবনার নতুন দ্বার উন্মোচন করবে বলে আমি বিশ্বাস করি।’

আরও পড়ুন: Viral : হঠাৎ দাউদাউ করে জ্বলে উঠল ফাঁকা রেললাইন! লন্ডনে হুলস্থূল কাণ্ড

হাসিনা মমতাকে লিখেছেন, আগামী সেপ্টেম্বর মাসে তিনি দিল্লি সফরে আসছেন। সেই সফর চলাকালীন মমতার সঙ্গে মুখ্যমন্ত্রীর সঙ্গেও দেখা হবে বলে তিনি চিঠিতে আশা প্রকাশ করেন। হাসিনা মমতাকে লিখেছেন, ‘দুই বাংলার ভাষা, সংস্কৃতি ও আদর্শগত সাদৃশ্যের উপর ভিত্তি করে বিদ্যমান সম্পর্ককে দৃঢ়তর করতে একযোগে কাজ করার বিকল্প নেই।’

প্রসঙ্গত, ২০০১ সালের ৪ জুলাই পদ্মা সেতুর ভিত্তি প্রস্তুর স্থাপন করেছিলেন বাংলাদেশের তৎকালীন প্রধানমন্ত্রী হাসিনা। এ বছর ২৫ জুন সেতুর আনুষ্ঠানিক উদ্বোধনও করেন তিনিই। ২৬ জুন থেকে সেতুতে যান চলাচল শুরু হয়ে যায়।

কলকাতার নবান্ন (Nabanna) সূত্রে খবর, এখনও পর্যন্ত সেপ্টেম্বরে মুখ্যমন্ত্রীর নয়াদিল্লি সফরের কোনও কর্মসূচি চূড়ান্ত হয়নি। তবে বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে মুখ্যমন্ত্রীর আন্তরিক সম্পর্ক এতটাই নিবিড় যে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় দিল্লি যাবেন নাকি ওপার বাংলার প্রধানমন্ত্রী কলকাতা ছুঁয়ে ঢাকা ফিরবেন তা এখনও স্পষ্ট নয়। স্বভাবতই, একুশে জুলাই সমাবেশের আগে মুখ্যমন্ত্রীর কাছে শেখ হাসিনার (Sheikh Hasina) আমন্ত্রণ আসায় বাড়তি উজ্জীবিত পশ্চিমবঙ্গের শাসক শিবির।

আরও পড়ুন: Rishi Sunak: চতুর্থ দফার ভোটেও শীর্ষে ঋষি সুনক, তবে শেষ ধাপে কঠিন হচ্ছে লড়াই

 

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on telegram
Share on whatsapp
Share on email
Share on reddit
Share on pinterest