ইরানে ভোটগণনার মধ্যেই হার মানলেন প্রতিদ্বন্দ্বীরা, নয়া প্রেসিডেন্ট ইব্রাহিম রাইসি

ইরানের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে ভোটগণনা এখনো শেষ হয়নি, এর মধ্যেই হার স্বীকার করে সম্ভাব্য বিজয়ী ইব্রাহিম রাইসিকে অভিনন্দনের জোয়ারে ভাসিয়েছেন প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থীরা। ইরানের স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, সেখানে এখনো ভোটগণনা চলছে। শনিবার দিনের শেষভাগে প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে বিজয়ীর নাম আনুষ্ঠানিকভাবে ঘোষণা করার কথা রয়েছে।

আরও পড়ুন : ‘আফগানিস্তানে সন্ত্রাস ছড়াচ্ছে ভারত’, অযথা অভিযোগ পাক বিদেশমন্ত্রীর

শুক্রবার ইরানের নতুন প্রেসিডেন্ট নির্ধারণে ভোট দিয়েছে দেশটির জনগণ। এতে কট্টরপন্থী নেতা ইব্রাহিম রাইসির জয় অনেকটাই সুনিশ্চিত বলে শুরু থেকে ধারণা করা হচ্ছে।ইরানের পরবর্তী প্রেসিডেন্ট হতে চলেছেন ইব্রাহিম রাইসি। বিপুল ভোটে নির্বাচনে জিততে চলেছেন বলে জানা গিয়েছে। নির্বাচনের ফল প্রকাশের পর রাইসিকে অভিনন্দন বার্তা পাঠান তাঁর প্রধান প্রতিপক্ষ আবদুল নাসের হেম্মাতি। তবে সরকারি ভাবে এখনও নির্বাচনের ফল প্রকাশ না হওয়ায় ইরানের অভ্যন্তরীণ মন্ত্রক কোনও ঘোষণা করেনি। এতদিন ইরানের প্রেসিডেন্ট ছিলেন হাসান রুহানি।

এর আগে ২০১৭ সালেও প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে দাঁড়িয়েছিলেন রাইসি। তবে রৌহানির কাছে তিনি হেরে যান। তবে এরপর আগামী পাঁচ বছরে ক্রমেই জনপ্রিয়তা বাড়তে থাকে এই ‘কট্টরপন্থী’ নেতার। বরাবরই আমেরিকা-সহ পশ্চিমা দেশগুলির তীব্র সমালোচনা করে এসেছেন রাইসি। তবে হোয়াইট হাউজে বাইডেন আসার পর ইরানের প্রতি মার্কিন মনোভাবে বদল এসেছে। এই পরিস্থিতিতে শান্তি বজায় রাখতে রাইসি নিজের অবস্থান বদল করেন কি না, তাই দেখার।

এদিকে হাসান রুহানি নাম না করে রাইসির উদ্দেশে বলেন, ‘মানুষের ভোটে নির্বাচিত। সরকারি ভাবে ঘোষণা না হওয়ায় আমি নাম নিয়ে অভিনন্দন জানাতে পারছি না। তবে এটা সবাই বুঝতেই পরছেন যে কে এই ভোট পেতে চলেছেন।’

আরও পড়ুন : ১৩ বছরের রেকর্ড ভাঙল সুইস ব্যাংকে ভারতীয়দের জমা অর্থের পরিমাণ!