school students who failed to clear HIgher Secondary exam staged a protest on road

HS Results 2022: ‘পাস না করালে আত্মহত্যার করব’, অবরোধ করে হুমকি অকৃতকার্যদের

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on telegram
Share on whatsapp
Share on email
Share on reddit
Share on pinterest

উচ্চ মাধ্যমিক পরীক্ষায় পাশ করানোর দাবিতে যশোর রোড অবরোধ করে আত্মহত্যার হুমকি দিলেন বনগাঁ কুমুদিনী স্কুলের পড়ুয়ারা। ওই পরীক্ষায় অকৃতকার্য হলেও পড়ুয়াদের দাবি, তাঁদের সকলকে পাশ করিয়ে দিতেই হবে। এই দাবি না মানলে রাস্তাতেই অনশন আন্দোলনের হুমকিও দিয়েছেন পড়ুয়ারা। বনগাঁ ছাড়াও হুগলি, বীরভূম এবং পশ্চিম বর্ধমানের মতো রাজ্যের বিভিন্ন জেলার নানা প্রান্তে প্রায় একই রকম বিক্ষোভের ছবি ধরা পড়েছে।

চলতি বছর উত্তর ২৪ পরগনার ওই স্কুলের ২৭৯ জন উচ্চ মাধ্যমিক পরীক্ষা দিয়েছিলেন। তাঁদের মধ্যে ৩৭ জন পরীক্ষার্থী ইংরেজি-সহ অন্যান্য বিষয়ে ফেল করেছেন। সোমবার সকাল থেকে বনগাঁর ওই স্কুলের সামনে যশোর রোডের উপর পথ অবরোধ করে বিক্ষোভ দেখানো শুরু করেছেন পড়ুয়ারা। তাঁদের অনেকের দাবি, শিক্ষাবর্ষের মাঝেই পাঠ্যক্রমের নানা পরিবর্তন করা হয়েছে। কখনও অনলাইন, কখনও বা অফলাইনে পরীক্ষা দিতে হবে বলা হয়েছিল তাঁদের। অঙ্কিতা পাল নামে এক ছাত্রীর কথায়, ‘‘সিলেবাস বার বার পাল্টাছে। অনলাইনে পরীক্ষা দেওয়ার কথা ছিল, অফলাইনে তা দিতে হয়েছে। সকলেই এক বিষয়ে ফেল করতে পারে না। যত ক্ষণ পর্যন্ত আমাদের পাশ করিয়ে না দেওয়া হয়, আমরা আন্দোলন করব। এ রাস্তা থেকে উঠব না।’’

নদিয়ার তাহেরপুর থানা এলাকার বীরনগর শিবকালী উচ্চ বালিকা বিদ্যালয় সূত্রে জানা গিয়েছে, এবছর ওই স্কুলে উচ্চ মাধ্যমিকে ১৫৩ জন ছাত্রী পরীক্ষা দিয়েছিলেন। এদের মধ্যে ৫৪ জন অকৃতকার্য হয় ইংরেজিতে। অকৃতকার্য প্রত্যেক ছাত্রীদের পাস করাতে হবে, এই দাবি তুলে রানাঘাট-আড়ংঘাটা রাস্তা অবরোধ করে বিক্ষোভ দেখায় ছাত্রীরা।

বীরভূমের সাঁইথিয়ার শশীভূষণ দত্ত বালিকা বিদ্যালয় এর প্রায় ৩১০ জন পরীক্ষার্থী এবার পরীক্ষা দিয়েছিলো, আর তারমধ্যে ২৯০ পরীক্ষার্থীরই ফেল দেখানো হচ্ছে বলে দাবি ছাত্রীদের। এরপরেই পাস করিয়ে দেবার দাবিতে বিদ্যালয়ের সামনে সাঁইথিয়া – লাভপুর চৌহাট্টা যাবার রাস্তা অবরোধ করে বিক্ষোভ দেখাতে শুরু করে।

আরও পড়ুন: একধাক্কায় ফের দাম কমল পেট্রল-ডিজেলের, একনজরে দেখুন নয়া রেট

একই দাবিতে বারাসত প্রিয়নাথ বালিকা বিদ্যালয়ের উচ্চ মাধ্যমিক অনুত্তীর্ণ পড়ুয়ারাও যশোর রোডে পথ অবরোধ শামিল হন। ওই স্কুলের ৭০ জন পরীক্ষার্থীর মধ্যে ৪০ জন অনুর্ত্তীর্ণ হয়েছেন। আন্দোলনকারীদের দাবি, তাঁদেরকে ইচ্ছাকৃত ভাবে ফেল করানো হয়েছে। যদিও এ বিষয়ে স্কুল কর্তৃপক্ষের সঙ্গে কথা বলতে চাইলে তাঁরা সদুত্তর দিচ্ছেন না বলেও দাবি ছাত্রীদের।

চুঁচুড়া ছাড়াও বৈদ্যবাটির সুরেন্দ্রনাথ রায় বালিকা বিদ্যালয়ের উচ্চ মাধ্যমিকে অসফল ছাত্রীরা বিক্ষোভ দেখান। ছাত্রীদের পাশাপাশি তাঁদের অভিভাবকেরাও স্কুলে গিয়ে ক্ষোভ প্রকাশ করেন। এ ছাড়া, চন্দননগর জ্যোতির মোড়ে অবরোধ করেন উষাঙ্গিনী বালিকা বিদ্যালয়ের ছাত্রীরা।

বনগাঁ কুমুদিনী স্কুলের এক ছাত্রী বলেন, ‘‘স্কুল থেকে আমাদের সকলকে অকৃতকার্য দেখিয়েছে। কিন্তু, আমরা এমন পরীক্ষা দিইনি যে পাশ করব না। আমরা কী করে একটি বিষয়ে (ইংরেজিতে) ফেল করলাম? এত জন একসঙ্গে কী করে অকৃতকার্য হয়? এটা আমরা কিছুতেই মানতে পারছি না। আমরা আন্দোলন করছি। আমাদের পাশ করিয়ে দিয়ে হবে। তা না হলে এখানেই অনশনে বসব, নয়তো আত্মহত্যা করব।’’ আর এক পডুয়া অঙ্কিতা দাসের দাবি, ‘‘মাধ্যমিকে আমি ফার্স্ট ডিভিশন পেয়েছিলাম। উচ্চ মাধ্যমিক রেজাল্টও ভাল হওয়ার কথা। এতটা খারাপ পরীক্ষাও দিইনি। আমাদের পাশ করাতেই হবে।’’

আরও পড়ুন: Rain Forecast: তিন-চার দিনেই কলকাতা-সহ দক্ষিণবঙ্গে বর্ষা: হাওয়া অফিস

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on telegram
Share on whatsapp
Share on email
Share on reddit
Share on pinterest