Pakistan Man Boils Wife In Cauldron In Front Of His Children

Pakistan: স্ত্রীকে শ্বাসরোধ করে খুন, পরে সন্তানদের সামনেই দেহ কড়াইয়ে ফোটালেন স্বামী!

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on telegram
Share on whatsapp
Share on email
Share on reddit
Share on pinterest

অবৈধ সম্পর্কে জড়াতে স্ত্রীকে জোরাজুরি করছিলেন স্বামী। কিন্তু রাজি হননি স্ত্রী। এর জেরেই স্ত্রীকে শ্বাসরোধ করে খুন করে তাঁর দেহ কড়াইয়ে ফোটালেন স্বামী। এই ভয়ঙ্কর দৃশ্য চাক্ষুষ করল তাঁদের ছয় সন্তান। শিউরে ওঠার মতো এই ঘটনা পাকিস্তানের সিন্ধ প্রদেশের।

জানা গিয়েছে, গুলশন-ই-ইকবাল এলাকার এক বেসরকারি স্কুলের নিরাপত্তারক্ষী আশিক পরিবার নিয়ে থাকত স্কুলেরই আবাসনে। স্ত্রীকে সে বিবাহবহির্ভূত সম্পর্কের (Ilicit Affairs) জন্য চাপ দিত। তাতে রাজি ছিলেন না নার্গিস। এ নিয়েই অশান্তি চলত। ঘটনা বুধবারের। সিন্ধের (Sindh Province) গুলশন-ই-ইকবাল এলাকার এক স্কুলের রান্নাঘরে ঢুকে শিউরে ওঠার মতো এক দৃশ্য চোখে পড়ে তদন্তকারীদের। দেখা যায়, সেখানকার রান্নাঘরে বিশালাকার কড়াইয়ের মধ্যে এক নারীর মৃতদেহ কার্যত সেদ্ধ করা হচ্ছে! দুঁদে তদন্তকারীরাও ঘাবড়ে যান।

আরও পড়ুন: Rishi Sunak : ব্রিটেনের PM হবেন ভারতীয় বংশোদ্ভূত ঋষি? জেনে নিন তাঁর সম্পর্কে মিথ্যে তথ্য

প্রাথমিক ধাক্কা সামলে তদন্তে নামে পুলিশ। জানা যায়, ওই মহিলার নাম নার্গিস। তাঁর মুখে বালিশ চাপা দিয়ে খুন করা হয় প্রথমে। তারপর এইভাবে কড়াইয়ে ফেলে শরীরের চামড়া সেদ্ধ করারও পরও আক্রোশ যায়নি খুনির। সেদ্ধ অবস্থায় মৃতের একটি পা টেনে ছিঁড়ে ফেলা হয়। মাকে এমন নারকীয়ভাবে খুনের দৃশ্য দাঁড়িয়ে থেকে দেখল ৬ সন্তান।

সিন্ধের পুলিশ কর্তা আবদুল করিম শেরাজি এক সংবাদমাধ্যমকে জানান, এসব কাণ্ডের পর তিন সন্তানকে নিয়ে পালিয়ে যায় নার্গিসের অভিযুক্ত স্বামী আশিক। তারপর পুলিশে খবর দেয় তার ১৫ বছরের মেয়ে। বাচ্চাদের নিরাপত্তার স্বার্থে পুলিশ হেফাজতে নিয়েছে। ভয়ংকর ঘটনার ধাক্কা সামলাতে না পেরে এখনও ভয়ে কাঁটা তারা। এই ঘটনায় মামলা দায়ের করা হয়েছে। অভিযুক্তের খোঁজে তল্লাশি অভিযান শুরু করেছে পুলিশ।

আরও পড়ুন: Sri Lanka crisis: সিঙ্গাপুরে পৌঁছেই ইস্তফা Gotabaya Rajapaksa-র, খুশিতে ডগমগ শ্রীলঙ্কাবাসী

Share on facebook
Share on twitter
Share on linkedin
Share on telegram
Share on whatsapp
Share on email
Share on reddit
Share on pinterest