সলমন, সলমন আর সলমন। ‘রাধে’ (Radhe) সিনেমার পোস্টারের নিতে ছোট ছোট হরফে লেখা ‘ইওর মোস্ট ওয়ান্টেড ভাই’। হ্যাঁ, ভাইজানের মহিমাতেই পরিপূর্ণ এই ছবি। যাঁরা সলমন খানের (Salman Khan) ভক্ত, তাঁদের অবশ্যই ভাল লাগবে। কারণ নিজের ইদ (Eid 2021) স্পেশ্যাল এই ছবিতে এক্সপেরিমেন্টের ধারকাছ দিয়েও যাননি সলমন থান। নিজের ‘ওয়ান্টেড’ ভাবমূর্তিই ধরে রেখেছেন তিনি। ছবি দেখে যা মনে হল পরিচালক প্রভু দেবার (Prabhu Deva) অ্যাকশন এবং কাট বলা ছাড়া আর কিছুই করার ছিল না। কারণ সলমন খানের মহিমাই তাঁর সিনেমা এক এবং অদ্বিতীয় অবলম্বন। বাকি চরিত্ররা কেবল আউট অফ ফোকাসে ক্যামেরার সামনে দাঁড়িয়েছেন।

ভাইজানের ছবি বলতে যা বোঝায়, ঠিক সেই গোত্রের সলমন খানের ‘রাধে’। ধুন্ধুমার অ্যাকশন, কমবয়সি নায়িকা, কিছু গা-গরম করা সংলাপ, আইটেম নাম্বার… এই তালিকায় সাধারণত ছবির গল্পকে উহ্য রাখা হয়। কারণ গল্প এই সব ছবিকে চালনা করে না। বরং গল্পকে পথ দেখিয়ে গন্তব্যে পৌঁছে দেয় লার্জার-দ্যান-লাইফ হিরো।

মুম্বইয়ের এনকাউন্টার স্পেশ্যালিস্ট রাধেকে (সলমন খান) তলব করা হয় যখন শহরের স্কুল-কলেজ পড়ুয়াদের বৃহত্তর অং‌শ মাদকের পাকেচক্রে শেষ হয়ে যাচ্ছে। এই চক্রের মাথা রানা (রণদীপ হুডা)। সলমনের ঊর্ধ্বতন অফিসারের চরিত্রে জ্যাকি শ্রফ। জ্যাকির বোন এবং সলমনের প্রেমিকা দিয়ার ভূমিকায় দিশা পাটনি। দুই স্থানীয় ডনকে ঘুঁটি করে রানার নাগাল পায় রাধে। এবং তাকে খতম করাই ছবির সারমর্ম।

আরো পড়ুন: টিকা নিয়েও করোনা আক্রান্ত পরিচালক হরনাথ চক্রবর্তী, ভরতি হাসপাতালে

এবার বাকি চরিত্রদের কথায় আসা যাক। ছবিতে সলমন খানের বিপরীতে দিয়ার চরিত্রে অভিনয় করেছেন দিশা পাটানি (Disha Patani)। নিজের জিম পারফেক্ট শরীর এবং হাসি প্রদর্শন করা ছাড়া আর কিছুই করার ছিল না তাঁর। সাজিদ এবং প্রয়াত ওয়াজিদের সুরারোপিত গানগুলি সিনেমা না থাকলেও হতো। দিয়ার দাদা এবং সলমনের সিনিয়রের চরিত্রে অভিনয় করেছেন জ্যাকি শ্রফ (Jackie Shroff)। এত বছরের অভিজ্ঞতা সম্পন্ন তারকা শুধুমাত্র কমেডিয়ান হয়ে রয়ে গিয়েছেন। যদিও সেটিও ঠিক জমে ওঠেনি। দিশার পোশাক পরে নাচার দৃশ্যটি আমার অন্তত দেখতে বেশ কষ্টই হল। রণদীপ হুডা  (Randeep Hooda) ঠিক ‘দাবাং’ সিরিজের ছেদি সিং কিংবা বাচ্চা সিংয়ের মতো ভিলেন ফিগার হয়ে ওঠার চেষ্টা করেননি, তিনি নিছক ড্রাগ ডিলার হিসেবেই থেকে গিয়েছেন।

তাই নতুন বা ছকভাঙা এমন কিছুই নেই এখানে, যা দর্শক আগে সলমনের ছবিতে দেখেননি। সেই কারণে সমালোচকদের পাশাপাশি দর্শকদের মন জয়েও এই ছবি ব্যর্থ তা বেশ স্পষ্ট। সলমন ফ্যানেদের প্রচেষ্টা সত্ত্বেও এই মুহূর্তে ছবির IMDb রেটিং কমে এসে দাঁড়িয়েছে ২.-এ, এই খবর লেখা পর্যন্ত ৪৫, ২১২ জন রিভিউ দিয়েছেন সিনেমাটির।

তবে সমালোচক ও দর্শকরা যাই বলুন না কেন, রাধে কিন্তু ইতিমধ্যেই নয়া রেকর্ড গড়ে ফেলেছে। প্রথম দিনের ভিউ সংখ্যার নিরিখে ওটিটি প্ল্যাটফর্মের পুরোনো সব রেকর্ড ধুলোয় মিশিয়ে দিয়েছেন ভাইজান। সলমন সোশ্যাল মিডিয়া পোস্টে জানান, প্রথম দিন ওটিটিতে প্রায় ৪২ লক্ষ-বার দেখা হয়েছে এই ছবি। ইদের দিন এই রিটার্ন গিফটের জন্য অনুরাগীদের ধন্যবাদ জানান তিনি, বলেন- ‘আপনাদের সমর্থন ছাড়া ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রি টিকবে না’।

 

View this post on Instagram

 

A post shared by Salman Khan (@beingsalmankhan)

আরো পড়ুন: ইদের শুভেচ্ছায় এক ফ্রেমে মিমি চক্রবর্তী এবং শুভশ্রী গঙ্গোপাধ্যায়

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *