আজ মরশুমের শীতলতম দিন, সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ১১.২, বর্ষশেষে বাংলায় থাকবে শীতের কামড়

বড়দিনে শীতের ভালোমতো আমেজ ছিল। আর বর্ষশেষে একেবারে জাঁকিয়ে শীত পড়তে চলেছে বাংলায়। ইতিমধ্যে তিন জেলায় শৈত্যপ্রবাহের পরিস্থিতি তৈরি হয়েছে।আলিপুর আবহাওয়া দফতরের পূর্বাভাস অনুযায়ী আজ

রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ানো থেকে ওজন কমানো! একাধিক গুণে ভরপুর মটরশুঁটি, জানুন…

শীতে মটরশুঁটি থাকবে না পাতে, তা আবার হয় নাকি! তাই মাংস থেকে শুরু করে ডাল, বাঙালির নানা রান্নাতেই কমবেশি এর যাতায়াত আছে। মটরশুঁটির কচুরিও শীতের

শীতের কামড়ে জবুথবু রাজ্য! কলকাতায় ১১ ডিগ্রিতে নামল তাপমাত্রা, দক্ষিণবঙ্গের ৬ জেলায় শৈত্যপ্রবাহের সতর্কতা

প্রতিদিনই কমছে কলকাতার তাপমাত্রা। গতকাল শহরের সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ছিল ১২.৫ ডিগ্রি সেলসিয়াস। সোমবার তা নেমে গিয়েছে ১১ ডিগ্রিতে। শুধু কলকাতা নয়, সেই সঙ্গে পাল্লা দিয়ে

আজ মরসুমের শীতলতম দিন,১২ ডিগ্রিতে কলকাতার তাপমাত্রা,কনকনে ঠান্ডায় কাঁপছে রাজ্য

আরও কমল কলকাতার তাপমাত্রা। শনিবার শহরের সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ছিল ১৩.১ ডিগ্রি। রবিবার তা নামল ১২-র ঘরে। ফলে আজ এখনও পর্যন্ত মরসুমের শীতলতম দিন। শুধু কলকাতার

করোনার জের, সংসদে হবে না শীতকালীন অধিবেশন, নেপথ্যে কি কৃষক চাপ?

করোনা সংক্রমণের জেরে এ বার সংসদে হবে না শীতকালীন অধিবেশন। মঙ্গলবার সরকারি সূত্রে এই খবর পাওয়া গিয়েছে।কেন্দ্রীয় সংসদ বিষয়ক মন্ত্রী প্রহ্লাদ যোশি জানিয়েছেন, সব দলই

শীতে সানস্ক্রিন ব্যবহার করেন না? জেনে নিন কতটা ক্ষতি করছেন ত্বকের

গরমকালে সানস্ক্রিন লাগানোর অভ্যাস থাকলেও শীতকালে অনেকেই স্নানস্ক্রিন লাগানো বন্ধ করে দেন। এতে আপনার ত্বকের আরও বেশি ক্ষতি হতে পারে। শীতের মরশুমে রোদের আমেজ নিতে

ঘন কুয়াশায় আজও স্বাভাবিকের উপরে তাপমাত্রা, ডিসেম্বরের মাঝামাঝি ঠান্ডা পড়বে কলকাতায়

তেমন ভাবে শীত না পড়লেও উত্তর ও দক্ষিণবঙ্গের একাধিক জেলাতেই বাড়ছে কুয়াশার ঘনত্ব। কোথাও কোথাও সকালের দিতে দৃশ্যমানতা ২০০ মিটারেরও কম রয়েছে।আজও ঘন কুয়াশার চাদরে

বাদ সাধছে পশ্চিমি ঝঞ্ঝা, রাজ্যে এসেও আটকে শীত

ভোরের দিকে ঠান্ডা, আবার বেলা গড়াতেই  উধাও শীত। দুই সপ্তাহ ধরেই এমনই রয়েছে বঙ্গের আবহাওয়া। নভেম্বরের প্রথম সপ্তাহ থেকেই হাল্কা ঠান্ডার আমেজ পাওয়া গিয়েছিল। শেষ

পশ্চিমবঙ্গ জুড়ে জাঁকিয়ে পড়ল শীত, তাপমাত্রা বাড়তে পারে শুক্রবার

গতকালের থেকেও তাপমাত্রা সামান্য কমেছে কলকাতায়। জাঁকিয়ে শীত পড়েছে জেলাতেও। বিশেষ করে দক্ষিণবঙ্গের পশ্চিমাঞ্চলের জেলাগুলিতে একধাক্কায় অনেকটাই কমে গিয়েছে তাপমাত্রা। উল্লেখ্য, গতকালই পানাগড়ে তাপমাত্রা ছিল